২৩, ফেব্রুয়ারি, ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ জমাদিউস সানি ১৪৩৯

এই বাসেই ধর্ষিত হয়েছিল রুপা, এটির মালিক এখন রুপার পরিবার

আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৪:০০ পিএম

এই বাসেই ধর্ষিত হয়েছিল রুপা, এটির মালিক এখন রুপার পরিবার
টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রী জাকিয়া সুলতানা রূপাকে গণধর্ষণ ও হত্যার সারা দেশে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে।  

যে বাসে এ অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছিল সেই ছোঁয়া পরিবহনের বাসটি নিহত রূপার পরিবারকে সাতদিনের মধ্যে হস্তান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।   একইসঙ্গে গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ৪ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।  


সোমবার বেলা সোয়া ১১টায় এ রায় ঘোষণা করেন টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক এবং
অতিরিক্ত  


জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক আবুল মনসুর মিয়া।   এ সময় আদালতে মামলার আসামিরা উপস্থিত ছিল।  


মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- ছোঁয়া পরিবহনের চালক হাবিবুর রহমান (৪৫), হেলপার শামীম (২৬), আকরাম (৩৫) ও জাহাঙ্গীর (১৯)।   সুপারভাইজার সফর আলীকে (৫৫) সাত বছরের কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  


এ রায় ঘোষণার মাধ্যমে মাত্র ১৭২ দিনের মধ্যে শেষ হলো আলোচিত এ মামলার বিচার কার্যক্রম।   আসামিরা সবাই কারাগারে রয়েছে।