১৭, জানুয়ারী, ২০১৮, বুধবার | | ২৯ রবিউস সানি ১৪৩৯

নারী নির্মাতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো সম্মেলন

আপডেট: ১৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০৭:৪৮ পিএম

নারী নির্মাতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো সম্মেলন

বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা নারী চলচ্চিত্র নির্মাতা, অভিনেত্রী ও নারী চলচ্চিত্র সমালোচকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘চতুর্থ আন্তর্জাতিক উইম্যান কনফারেন্স’। আজ রোববার রাজধানীর আলিয়স ফ্রসেজে অনুষ্ঠিত হয় সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনের পর্ব।


সকাল থেকে তিনটি সেশনে চলে এ আয়োজন। বিকেলের সেশনে আলোচনায় অংশ নেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার অপর্ণা সেন। আগামীকাল সোমবার (১৫ জানুয়ারি) জাতীয় গণগ্রন্থাগারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনেও বক্তব্য রাখবেন তিনি।



এর

আগে সকালের সেশনে ভারতের অভিনেত্রী এবং পরিচালক বিজয়া জেনা, ঢকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক গীতি আরা নাসরিন এবং ব্রাজিল থেকে আগত চলচ্চিত্র নির্মাতা ল্যুড মনাকো বক্তব্য রাখেন।


এ সময়ে বক্তারা ভারতীয় চলচ্চিত্রে মাতৃত্বের উপস্থাপনা এবং নারীদের চলচ্চিত্র মাধ্যমে কাজ এর মাত্রা কেমন সেই বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করেন।


দ্বিতীয় সেশনে উপস্থিত ছিলেন ইরান থেকে আগত বহুমাত্রিক অভিনেত্রী ফাতেমা মোহাম্মদ। তিনি বলেন চলচ্চিত্রে নারীকে শুধু নারী এ একটি পরিচয়ে উপস্থাপন করা হবে এমন তত্ত্বে তিনি বিশ্বাসী নন বরং নারীকে একজন মানুষ হিসেবে উপস্থাপন করায় তিনি বিশ্বাস করেন।


এ সময় কনফারেন্সে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর শুরু হয় তৃতীয় সেশন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও চলচ্চিত্র নির্মাতা অপর্ণা সেন এবং তুরস্কের চলচ্চিত্র সমালোচক এলিন তাস্কিয়ান। এ সময়ে বক্তারা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে উন্নত দেশের নারীরা দক্ষিণ এশীয় নারীদের কেমন দৃষ্টিতে দেখেন তা নিয়ে আলোচনা করেন।


তৃতীয় সেশনের প্রশ্নোত্তর পর্বে অপর্ণা সেন তার নির্মিত অনেক সিনেমার উদাহরণ দিয়ে চলচ্চিত্রে দক্ষিণ এশীয় নারীদের উপস্থাপনা ব্যাখ্যা করেন।


চলচ্চিত্রের বিভিন্ন মাধ্যমে খ্যাতনামা নারীদের এক অভূতপূর্ব মিলনমেলার দৃশ্য চোখে পড়ে কনফারেন্সে। ষোড়শ ঢাকা আন্তার্জতিক চলচ্চিত্র উৎসবের মূল আকর্ষণ হিসেবে দুদিনব্যাপী এ আয়োজনে সহযোগিতা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইমেন অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগ।