২০, এপ্রিল, ২০১৮, শুক্রবার | | ৪ শা'বান ১৪৩৯

নাতি-নাতনিদের সাথে খুনসুটি! প্রশংসায় সিক্ত হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৫:৫৮ পিএম

নাতি-নাতনিদের সাথে খুনসুটি! প্রশংসায় সিক্ত হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের অফিসিয়াল ফটোগ্রাফার সুমন দাশ তার ফেসবুকে দুটি ছবি শেয়ার করে লেখেন, ‘আজ বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে তাঁর নাতি-নাতনিদের সাথে। ’




ওই ছবি দু’টির একটিতে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনের মাঠে প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর নাতি-নাতনিরা টানাটানি করছেন।  আরেকটিতে দেখা যায় প্রধানমন্ত্রী একটি গাছের বেদিতে বসে তাঁর নাতনির চুলে হাত বুলাচ্ছেন। 




পোস্ট করার পরপরই ছবি দু’টি খুব দ্রুত ভাইরাল
হয়ে যায়।  সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রশংসাসূচক বাক্য লিখে ছবি দুটি শেয়ার করতে থাকেন অনেকেই এবং আজকেও তা অব্যাহত আছে। 







প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকনও এ দুটি ছবি তার ফেসবুকে পোস্ট করে লেখেন, ‘আজ বিকেলে গণভবনে নাতি-নাতনিদের সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।  বঙ্গবন্ধুর ছোট কন্যা শেখ রেহানার ছেলে রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববির সন্তান লীলা ও কাইয়ূস এর সাথে শেখ হাসিনা।  সাধারণে অসাধারণ আমাদের আপা …। ’




খোকন ছবি দু’টি শেয়ার করার পর এখন আজ বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত তার ওয়াল থেকেই ৬৪৫জন ফেইচবুক ব্যবহারকারী তা তাদের নিজস্ব ওয়ালে শেয়ার করে।  তার শেয়ার করা ছবিতে লাইক পরে প্রায় ছয় হাজার এবং প্রশংসাসূচক মন্তব্যে তার কমেন্ট বক্স ভরে যায়। 




শাহাজাদি মোত্তাকিন (Shahajadi Muttakin) নামে একজন লেখেন, ‘একজন PM হওয়ার জন্য যে সব গুণ থাকা দরকার তার চেয়ে বেশী গুণ আছে আমারদের দেশের এই প্রধানমন্ত্রীর,,,কারণ মানুষের অহংকারে মানুষ পতন হয়,, শেখ হাসিনার কোনো অহংকার নাই। 




এস. এম. মাহমুদুল হাসান নিবীড় (S.m. Mahmudul Hassan Nibeer) নামে একজন লেখেন, ‘আমাদের মমতাময়ী “হাসু আপা”’







শাহিনুর ইসলাম নামে একজন সাংবাদিক ছবি দু’টি তার ওয়ালে শেয়ার করে লেখেন, ‘ নেই অখণ্ড অবসর।  তবুও কাজের ফাঁকে নাতি-নাতনীর সঙ্গে গণভবণে আনন্দে মেতে ওঠেন প্রধানমন্ত্রী।  তারও ঊর্ধে হলো- তিনি কারো মা, কোন শিশুর দাদী বা নানী।  সবার প্রতি ভালোবাসা আর আনন্দ ভাগের বিরল ছবিগুলো শুক্রবার তোলা। 




ছবি দু’টির জন্য প্রশংসায় ভাসছেন প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের অফিসিয়াল ফটোগ্রাফার সুমন দাশও।  চট্টগ্রামের ফটো সাংবাদিক কমল দাশ তার ফেইচবুক ওয়ালে লিখেছেন, ‘এই হল বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  কখনো মায়ের ভূমিকায়, আবার কখনো মমতাময়ী দাদী।  এইদেশের মানুষের শেষ ভরসার জায়গা তিনি।  আজ গণভবনে নাতি – নাতনিদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগির অসাধারণ সময়টুকু ক্যামেরা বন্ধি করেছেন আমাদের প্রিয় বন্ধু ও ভাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অফিসিয়াল আলোকচিত্রী সুমন দাশ ।  শুভকামনা সুমন দাশের জন্য। ’




গত মাসের ২১ তারিখের প্রধানমন্ত্রীর রান্না করার একটি ছবিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।  সেই ছবিটিতে দেখা গেছে, চুলায় পাশাপাশি থাকা দু’টি সসপ্যান থেকে ধোঁয়া উঠছে।  তার একপাশে এপ্রোন পরে দাঁড়িয়ে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  হাতে কাঠের খুন্তি ও মুখে প্রশস্ত হাসি।  চুলার সামনে তার এমন দাঁড়িয়ে থাকাই বলছে, খুব আনন্দ নিয়ে তিনি রান্না করছেন। 




প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব খোকন ওইদিন বিকেলে নিজের ফেসবুক ওয়ালে এ দু’টি ছবি পোস্ট করেন।  ছবি পোস্ট করে খোকন ক্যাপশন অংশে লিখেছেন, ‘সাধারণে অসাধারণ আমাদের ঠিকানা… (গতকালের ছবি, গণভবন)’। 




এর আগে ২০১৩ সালের জুলাই মাসের শেষ দিকে ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্য রান্না ঘরে ঢুকে রান্না করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ছেলের জন্মদিন উপলক্ষে করা প্রধানমন্ত্রীর ওই রান্নার ছবিও তখন ভাইরাল হয় ফেসবুকে।