ভালুকায় বীর মুক্তিযোদ্ধার জমি জবরদখল ও প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে রবিবার (২ জুন) সকালে ভালুকা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন জানান, তিনি ২০০৯ সাল থেকে হবিরবাড়ি মৌজায় ১১৬ খতিয়ানে ৮২৯ দাগে ১১০ শতাংশ জমির কাতে সোয়া ২০ শতাংশ জমি ক্রয় করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে ভোগদখল করে আসছিলেন। ওই জমিটি ইন্ডাস্ট্রি করার জন্যে বিশেষ প্রয়োজনে সালাহ উদ্দিন সরকার বাজার মূল্যে ক্রয় করতে চাইলে তিনি জমিটি বিক্রি করতে রাজি হন নি। পরে সালাহ উদ্দিন সরকার ঢাকা বসুন্ধরা হাউজিং এর পি ব্লকে তার ৫ কাঠার প্লটের সাথে এওয়াজ বদল করার কথা বললে তিনি রাজি হন।

ওইসময় কিছু বুঝে উঠার আগেই সালাহ উদ্দিন সরকার তার জমিতে নিজ নামে একটি সাইনবোর্ড লাগায়। এসময় জয়নাল আবেদীন সালাহ উদ্দিন সরকারকে বসুন্ধরার ওই প্লটটি বুঝিয়ে দিতে বললে তিনি তা বুঝিয়ে না দিয়ে কালক্ষেপন শুরু করেন। দীর্ঘদিন যাবত এ নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরাঘুরি করে কোনো লাভ না হওয়ায় তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছেন।এবিষয়ে অভিযুক্ত সালাহ উদ্দিন সরকারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উল্লেখিত দাগে আমার বা আমার পিতার নামে কোনো জমি নেই।