হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুর পর নতুন সংসদে ভাষণ দিয়েছেন ইরানের অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোখবার। ইরান যখন মাত্র এক মাসের মধ্যে প্রয়াত ইব্রাহিম রাইসির স্থলাভিষিক্ত হতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে তখন সোমবার এ ভাষণ দিলেন তিনি।

মোখবার তার বক্তব্যে রাইসির ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ের প্রশংসা করে বলেন, ইরানের অপরিশোধিত তেল উৎপাদন- যা দেশের জন্য হার্ড কারেন্সির মূল উৎস- প্রতিদিন ৩.৬ মিলিয়ন ব্যারেলেরও বেশি বেড়েছে।

ইরানের তেলমন্ত্রী জাভেদ ওজি রোববার বলেছেন, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরান এখন প্রতিদিন প্রায় ২০ লাখ ব্যারেল তেল রপ্তানি করছে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে ইরাক, ইসরাইল ও পাকিস্তানে সামরিক পদক্ষেপ নেওয়ার পরও রাইসির অধীনে দেশের অর্থনীতি স্থিতিশীল ছিল বলেও সংসদে জানান মোখবার।

তিনি বলেন, আমরা যেদিন ইসরাইলকে আঘাত করি, সেদিন মানুষ সকালে ঘুম থেকে ওঠার সময় পরিসংখ্যান এবং সূচকগুলো একই থাকে, হার্ড কারেন্সির দাম একই, মুদ্রাস্ফীতি একই, তারল্য একই এবং বাজার মানুষের প্রয়োজনে পূর্ণ।

মোখবার দাবি করেন, এই শক্তি, এই ব্যবস্থাপনা এবং এই ক্ষমতা কোনো সাধারণ জিনিস নয়। এগুলো সবই সর্বোচ্চ নেতার দিকনির্দেশনা এবং আয়াতুল্লাহ রাইসির আন্তরিক প্রচেষ্টার কারণে হয়েছিল।

এদিকে, ইরানের পার্লামেন্ট মঙ্গলবার তাদের নতুন স্পিকার নির্বাচন করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

গত ২০ মে ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি পার্বত্য অঞ্চল থেকে মারাত্মক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার পর রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমিরআবদুল্লাহিয়ান ও অন্যদের মরদেহ উদ্ধার করে উদ্ধারকারীরা।

রাইসির স্থলাভিষিক্ত হতে আগামী ২৮ জুন ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বৃহস্পতিবার থেকে প্রার্থীদের পাঁচ দিনের রেজিস্ট্রেশন পিরিয়ড খোলা হবে। বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, মোখবার নিবন্ধনকারীদের মধ্যে একজন হতে পারেন।