অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বলেছেন, ‘আপনারা দেখছেন ক্ষমতাধর সাবেক পুলিশ প্রধানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’ ঋণখেলাপিরা ‘শক্তিশালী’ হলেও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আজ রবিবার (২৬ মে) আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) নির্বাহী পরিচালক কৃষ্ণমূর্তি ভেঙ্কারা সুব্রামানিয়ানের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এসব কথা বলেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনার বিষয়ে সরকারকে পরামর্শ দিয়েছে।আমরা সে অনুযায়ী ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। আমি ঋণখেলাপিদের ধরতে চাই।

ঋণখেলাপিরা অনেক শক্তিশালী। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আপনি পারবেন কি না? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘দেখা যাক পারা যায় কি না।

আপনারা দেখছেন সাবেক পুলিশ প্রধানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। তার কি ক্ষমতা কম ছিল? সাবেক পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে আদালত যে ব্যবস্থা নিচ্ছে, তাতে সরকারের সমর্থন রয়েছে।

এ ছাড়া সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের বিরুদ্ধে কোনো নিয়ম-দুর্নীতির তথ্য থাকলে, তার বিচার সেনাবাহিনী করবে বলে জানান অর্থমন্ত্রী। এর আগে সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের ৮৩টি দলিলে থাকা সকল সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ প্রদান করেন আদালত।

একই সঙ্গে তার ২৭টি ব্যাংক হিসাবসহ আর্থিক লেনদেনকারী মোট ৩৩টি হিসাব জব্দ থাকবে। বেনজীর ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে থাকা সম্পদ জব্দের আদেশ চেয়ে দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন আদালত।