গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী দেশের মালিক হচ্ছে জনগণ। তাই রাষ্ট্রের প্রতি মালিকানাবোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে সকল ধরণের সংঘাত ও সহিংসতা পরিহার করে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সৎ, যোগ্য, দেশপ্রেমিক ও জনকল্যাণে নিবেদিত প্রার্থীকে নির্বাচিত করা ভোটার তথা জনগণের দায়িত্ব এবং কর্তব্য। জনগণ এ দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে পালন না করলে অযোগ্যরা ক্ষমতায় আসবে, যার ফলাফল নাগরিকদেরকেই ভোগ করতে হবে।

উখিয়া পিএফজির উদ্যোগে আসন্ন উখিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সংঘাত সহিংসতা পরিহার করে অধিকতর সৎ এবং যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করার আহবানে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ চৌধুরী এ কথা বলেন ।

উখিয়া পিএফজির কো-অর্ডিনেটর ও উখিয়া উপজেলা সুজনের সভাপতি সাংবাদিক নূর মোহাম্মদ শিকদারের সভাপতিত্বে শনিবার (২৫ মে, ২০২৪) বিকালে উখিয়া প্রেস ক্লাবের সম্মেলন কক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে উখিয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রতন কান্তি দে ভোটার ও প্রার্থীদের উদ্দেশ্যে পিএফজির পক্ষ থেকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, নির্বাচনী সহিংসতার কারণে পাশ্ববর্তী ঈদগাঁও উপজেলায় একজন নিহত ও শতাধিক আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আমরা পিএফজি সদস্যগণ উখিয়াতে এ ধরণের হতাহতের ঘটনা দেখতে চাইনা। তাই নির্বাচন কমিশন কতৃক প্রবর্তিত নির্বাচনী আচরণ বিধি মেনে চলার জন্য পিএফজির পক্ষ থেকে আমি প্রার্থী এবং ভোটারদেরকে অনুরোধ করছি।

সংবাদ সম্মেলনে উখিয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ, হুমায়ুন কবির জুসান, আয়ায রবি, পলাশ বড়ুয়া, শহিদুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল জুবাইর,সৈয়দ হোসেন চৌধুরী, রাশেদুল ইসলাম শিকদার, তাজুল ইসলাম প্রমুখ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের পাশাপাশি উখিয়ার বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

বার্তা বাজার/এইচএসএস