শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় একটি ড্রেজার মেশিন অপসারণ ও দুটি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার ( ২৩ মে ) বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত কীর্তিনাশা নদীর তীরে পৃথক তিনটি অভিযান করেন উপজেলা ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও ভেদরগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমামুল হাফিজ নাদিম।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, ভেদরগঞ্জ  উপজেলার রামভদ্রপুর ইউনিয়নের কীর্তিনাশা নদীতে দীর্ঘদিন ধরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করছে একটি বালু খেকো চক্র। বালু উত্তোলন ও ট্রাকে পরিবহনের ফলে প্রাকৃতিক পরিবেশ নষ্টের পাশাপাশি এলাকার সড়কগুলো নষ্ট হচ্ছে। এমন গোপন তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমামুল হাফিজ নাদিম ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশকে সাথে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

এ সময় কীর্তিনাশা নদী থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের দায়ে রামভদ্রপুর এলাকায় পাইপসহ একটি ড্রেজার মেশিন অপসারণ এবং দুইটি ড্রেজার মেশিন আটক করা হয়।

এবিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও ভেদরগঞ্জ উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইমামুল হাফিজ নাদিম বলেন, বালু উত্তোলনের ফলে নদী ভাঙনসহ পরিবেশের মারাত্বক ক্ষতি হচ্ছিল। এসময় একটি ড্রেজার মেশিন অপসারণ ও দুটি ড্রেজার জব্দ  করা হয়েছে। এ অভিযান আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে।

বার্তা বাজার/এইচএসএস