নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনে গোপন বুথে না গিয়ে প্রকাশ্যে ভোট দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন এক ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা। গত শনিবার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে আয়োজিত উঠান বৈঠকে এই মন্তব্য করেন তিনি।যুবলীগের ওই নেতার নাম লিটন সিকদার। তিনি আড়াইহাজারের কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক।

ওই যুবলীগ নেতার দাবি, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম (বাবু) ঘোড়া প্রতীকে নির্বাচনের জন্য তাকে প্রবাস থেকে নিয়ে এসেছেন। ঘোড়া প্রতীকে নির্বাচন করছেন কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য সাইফুল ইসলাম স্বপন।

কালাপাহাড়িয়া আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার সন্ধ্যায় কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য মো. লিটনের বাড়িতে ঘোড়া প্রতীকের উঠান বৈঠক হয়। উঠান বৈঠকে বক্তব্য দেন ওই যুবলীগ নেতা। যুবলীগ নেতার বক্তব্যের একটি ভিডিও রোববার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে কথা বলতে যুবলীগ নেতা লিটন সিকদারের মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করেও তার সাড়া পাওয়া যায়নি।
আরেক চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজালাল মিয়া বলেন, ‘বিষয়টি দুঃখজনক। কালাপাহাড়িয়াসহ মোট ছয়টি ইউনিয়নে জাল ভোট ও কেন্দ্রে নাশকতার শঙ্কার কথা জানিয়ে আমরা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অতিরিক্ত পুলিশ ও সার্বক্ষণিক ম্যাজিস্ট্রেট চেয়েছি। আড়াইহাজারে প্রশাসন অনেক বেশি সোচ্চার না হলে সুষ্ঠু ভোট সম্ভব হবে না।

নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাকিব আল রাব্বি বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য সব প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে।’