বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আদর্শ পরিপন্থী ও সংগঠনের রীতিনীতি পরিপন্থী বক্তব্য দেওয়ায় কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খানকে শোকজ (কারন দর্শনের) নোটিশ দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। দলটির পক্ষ থেকে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার স্বাক্ষরিত ওই নোটিশ ১১ মে পাঠানো হয়।

তবে গতকাল শনিবার রাতে বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসগর আলী নোটিশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কারণ দর্শানোর ওই নোটিশে বলা হয়েছে, সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত আপনার (সদর উদ্দিন খান) বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে এবং তা সংগঠনের রীতিনীতি ও আদর্শ পরিপন্থী। শিষ্টাচারবহির্ভূতভাবে প্রদত্ত আপনার বক্তব্য সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

এমতাবস্থায় আপনার (সদর উদ্দিন খান) বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না, তা ব্যাখ্যাসহ লিখিত জবাব ১৫ দিনের মধ্যে আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসগর আলী বলেন, কয়েক দিন আগে নোটিশ হাতে পেয়েছেন তিনি। তবে এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে তিনি রাজি হননি।

বিষয়টি নিয়ে জানতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খানের মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি সাড়া দেননি। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, ১ মে সন্ধ্যায় জেলার খোকসা উপজেলার আমবাড়িয়া ইউনিয়নের গোসাইডাঙ্গি গ্রামে একটি নির্বাচনী পথসভায় সদর উদ্দিন তাঁর ছোট ভাই ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী রহিম উদ্দিন খানের পক্ষে অংশ নেন। সেখানে সদর উদ্দিনের দেওয়া বক্তব্যের ২ মিনিট ১৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ওই সময় ধর্মীয় বিষয় নিয়ে কিছু কথা বলেন তিনি; এসব বক্তব্যকে আপত্তিকর বলে উল্লেখ করেছেন অনেকেই।

বার্তা বাজার/এইচএসএস