শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুরে আবারো একটি বিষধর রাসেল ভাইপার সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন স্থানীয়রা।

শনিবার (১৮মে) সকালে উপজেলার সখিপুর থানার দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের আসাদ বেপারী কান্দি এলাকা থেকে সাপটিকে ধরা হয়। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৬ মে) একই উপজেলার কাঁচিকাটা ইউনিয়নের চরজিংকিং এলাকা থেকে একই প্রজাতির আরেকটি সাপটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বেশ কয়েকদিন ধরে উপজেলার চরাঞ্চল সখিপুর সাপের উপদ্রব দেখা দিয়েছে। শনিবার সকালে দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়নের আসাদ বেপারী কান্দি এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা মাসুদ ঢালী তার বাড়ির পাশের জমিতে ঘাস কাটছিলেন। এসময় তিনি রাসেল ভাইপার সাপটিকে দেখতে পায়। পরে তিনি ডাক দিলে স্থানীয়রা এসে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী মাসুদ ঢালী বলেন, আমি বাড়ির পাশে গরুর খাওয়ার জন্য ঘাস কাটছিলাম। তখন দেখি একটি সাপ। সাপটি যখন চলে যাচ্ছিলো তখন আমি লোকজন ডাক দেই। তারা এসে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে।

এবিষয়ে দক্ষিণ তারাবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজালাল মাল বলেন, আমি খবরটি পেয়েছি। আসাদ বেপারী কান্দি এলাকায় একটি রাসেল ভাইপার সাপ ধরার পর মেরে ফেলা হয়েছে। কয়েকদিন ধরে আমাদের ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গায় সাপ ধরা পড়ছে। আমরা এ বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করছি।


বার্তা বাজার/এইচএসএস