আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ১৯৮১ সালের আজকের এই দিনটি ছিল (১৭ মে) বাংলাদেশের মানুষের জন্য স্বপ্ন দেখার দিন,নতুন ভবিষ্যৎ গড়ার যে স্বপ্ন সেই স্বপ্ন দেখার দিন। জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালের আজকের ১৭ মে বাংলাদেশের ফিরে এসে মানুষ যে স্বপ্ন দেখত মানুষকে যে স্বপ্ন দেখিয়েছে শেখ হাসিনা মানুষের সেই স্বপ্ন পূরণ করেছেন। এইজন্য ১৯৮১ সালের ১৭ই মে বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে গাঁথা থাকবে।

১৭ মে শুক্রবার সকালে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে এসে পৌঁছালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

পরে তিনি উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের বনগজ – কৃষ্ণনগর সড়কের তিতাস নদীর ওপর নির্মাণাধীন সেতু পরিদর্শন করেন এবং এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। বক্তব্য তিনি ওই এলাকায় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাস্তা সহ বিভিন্নমূলক কাজের প্রতিশ্রুতি দেন।

সেখানে আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আবার বলেন,২০০১ সাল থেকে ২০০৬ পর্যন্ত বিএনপি সরকার আমলে তারা যুদ্ধাপরাধী, রাজাকার, আলবদর এবং নিজেরা পাকিস্তানের দালাল হয়ে বাংলাদেশের জনগণকে শোষণ, শাসন এবং অত্যাচার করতো।

আর বর্তমান চিত্র, বাংলাদেশের জনগণের উন্নয়ন হচ্ছে- এ উন্নয়ন দেখে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপির সহ্য হচ্ছে না। সেজন্য এখন তাদের মাথা খারাপ অবস্থা। এসময় আরেক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ঋণ খেলাপীর তালিকা বিএনপির আমলে সবচেয়ে বেশি ছিল।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ বোরহান উদ্দিন, ধরখার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাফিকুল ইসলাম শাফি প্রমুখ।

বার্তা বাজার/এইচএসএস