কুয়াশার চাদরে ঢেকে আছে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল। ভোর থেকেই প্রচণ্ড কুয়াশায় ছেয়ে গেছে। সকাল ৮টা পর্যন্তও দেখা মেলেনি সূর্যের। মাঝে মাঝে সূর্য উঁকি দিতে দেখা যাচ্ছে। তাপমাত্রা আরও কমে শৈত্যপ্রবাহের কাছাকাছি চলে গেছে। দিনের সামান্য রোদ হাড়কাঁপানো শীত কমাতে পারছে না।

এদিকে দেশের ৪ জেলাসহ চার বিভাগে বইছে শৈত্যপ্রবাহ। বাকি এলাকাগুলোয় শীতল বাতাস বইছে। অনেক জেলায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, এই শীত চলতি জানুয়ারি মাসের পুরো সময়জুড়ে থাকতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বুধবার খুলনায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া ঢাকাসহ দেশের মধ্যাঞ্চল থেকে উপকূল পর্যন্ত আকাশ মেঘলা থাকতে পারে। আগামী দুই থেকে তিন দিন দেশের উপকূলসহ কয়েকটি এলাকায় হালকা বৃষ্টি হতে পারে এবং থাকতে পারে মেঘ। ফলে এসব এলাকায় তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। আগামী দু-এক দিন মেঘ-বৃষ্টি থাকতে পারে। তার পর আবারও শীত বাড়তে পারে।

মঙ্গলবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গায় ৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকা, রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগজুড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

এ ছাড়া মৌলভীবাজার, ভোলা, কুমিল্লা ও বরিশালে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। দু-একটি জায়গা থেকে শৈত্যপ্রবাহ কমে গেলেও অধিকাংশ এলাকায় তা অব্যাহত থাকতে পারে। রাজধানী ঢাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে আসে।

বার্তাবাজার/এম আই