কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় অবৈধ ইটভাটা, অবৈধ ভাবে ইট উৎপাদন ও অনুমোদন নয় এমন স্থান থেকে মাটি কাটার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালিয়েছে। এ সময় ৪টি ইটভাটাকে সাড়ে নয় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে উপজেলার নবীপুর পূর্ব, মুরাদনগর সদর এবং ছালিয়াকান্দি ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইনে এই অভিযান পরিচালনা করেন মুরাদনগর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাসরিন সুলতানা নিপা।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন,  কুমিল্লা জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের সিনিয়র কেমিস্ট রায়হান মোরশেদ, কুমিল্লা জেলা বিএসটিআইয়ের পরিদর্শক লুৎফর রহমান, মুরাদনগর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র ফায়ার ফাইটার নূরে আলম,ফায়ার ফাইটার আরিফুর রহমান, মুরাদনগর থানার এসআই আমিনুর রহমান প্রমুখ।

জানা যায়, নিষিদ্ধ এলাকায় ইটভাটা পরিচালনা করায় মেসার্স এম বি সি ব্রিকস, মেসার্স মুক্তা ব্রিকস এবং মেসার্স নিউ জনতা ব্রিকস (সাবেক শাপলা ব্রিকস) ৩ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। এছাড়া অনুমোদন নয় এমন স্থান থেকে মাটি সংগ্রহ করায় মেসার্স এফ আলী ব্রিকসকে ৫০ হাজার টাকা
জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে মুরাদনগর সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নাসরিন সুলতানা নিপা বলেন, ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৩ এর ৮(৩) ধারা লঙ্ঘন করে নিষিদ্ধ এলাকায় ইটভাটা পরিচালনা করায় তিনটি ইটভাটাকে ৯ লাখ টাকা এবং একই আইনের ৫(২) ধারা লঙ্ঘন অন্য একটি ভাটাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে আদায় করা হয়েছে। পরিবেশ সুরক্ষায় এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায়।

বার্তা বাজার/জে আই