পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় যাত্রীবাহীবাস ও মাইক্রোবাসের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল পৌনে ৮টার দিকে উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের মিরকামারী পূর্বপাড়া কুষ্টিয়া-নাটোর-পাবনা মহাসড়কে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- প্রাইভেটকারের যাত্রী পাবনার রাধানগর এলাকার সুব্রত কুণ্ডুর ছেলে অমিত কুমার কুণ্ডু (৪০) ঈশ্বরদীর মুলাডুলি ইউনিয়নের শেখপাড়া গ্রামের আব্দুর রউফের ছেলে নাসিম আহমেদ (৪৫)। তারা পাবনা থেকে ঈশ্বরদী রপ্তানি ও প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকা (ইপিজেড) যাচ্ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকালে পৌনে ৮ টার দিকে রাজশাহী অভিমুখী যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ঘ) ১৫-৫৩৭০ এস এম পরিবহণ কুষ্টিয়া হতে যাচ্ছিল। এসময় পাবনা থেকে যাওয়া কুষ্টিয়া অভিমুখে যাওয়া ঢাকা মেট্রো-চ ১৬-০৮৭১ মাইক্রোবাসের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে কারটি দুমড়েমুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে প্রাইভেটকারের দুইজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা তাদের উদ্ধার করে পাকশী হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

ঘটনা নিশ্চিত করে পাকশী হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশীষ কুমার স্যানাল জানান, যাত্রীবাহী বাসের সাথে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে মাইক্রোবাসে থাকা দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

পাকশী হাইওয়ে থানার ওসি আশীষ আরও জানান, নিহতদেট পরিচয়,সনাক্ত করে তাদের পরিবারে খবর দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় যাত্রীবাহী বাসটি হাইওয়ে পুলিশ আটক করেছে। চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনা আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলমান।

বার্তাবাজার/এম আই