আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমাদের পার্টির প্রধান জাতীর পিতার কন্যা শেখ হাসিনা প্রমাণ করে দেখিয়েছেন, সরকার প্রধান হয়েও স্বাধীন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে সংবিধানের বিধান অনুযায়ী কীভাবে একটা গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে হয়, আর সকলে তা প্রত্যক্ষ পর্যবেক্ষণ করেছেন। রোববার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের অফিসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘একটি সফল সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সর্বাত্মক সহযোগিতা করা নির্বাচন কমিশনকে যথাযথ ফেসিলিটেড করা, কো-অপারেট, কো-অপারেশন দিয়ে শেখ হাসিনা যে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, সেই জন্য আমি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আমরা নির্বাচন কমিশন, রিটার্নিং, সহকারী রিটার্নিং অফিসার, নির্বাচন পরিচালনায় নিয়োজিত সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী, স্থানীয় প্রশাসন, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, কোস্টগার্ড, আনসার, ফায়ার ব্রিগেড, গ্রাম পুলিশ, পর্যবেক্ষক, প্রিসাইডিং ও পোলিং অফিসার, অর্থাৎ নির্বাচন আয়োজন ও পরিচালনা দায়িত্ব পালনে নিয়োজিত সকলকেই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে আমি আবারও আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে দেখুন সারাদেশে এতগুলো ইলেকশন হয়ে গেল, আছে বিচ্ছিন্ন-বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা, একজনের দুঃখজনক মৃত্যুর খবরও আছে। এ ধরনের ইলেকশনে আরও অনেক মৃত্যুজনিত ঘটনা ঘটে থাকে। সেই তুলনায় আমাদের দেশে বিচ্ছিন্ন-বিক্ষিপ্ত সহিংসতা বলেন, সংঘাত বলেন প্রকটভাবে এটার কোনো নিদর্শন আমরা দেখতে পাইনি। একটিমাত্র মৃত্যু ঘটেছে এবং এটা ইলেকশন রিলেটেড। এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই।’

বার্তা বাজার/জে আই