নৌকায় ভোট না দিলে ভোটার আইডি কার্ড থেকে নাম কাটার হুমকি দিয়ে আলোচনার সৃষ্টি করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু। তিনি শুক্রবার শাজাহানপুর উপজেলায় বগুড়া-৭ (গাবতলী-শাজাহানপুর) আসনে নির্বাচনি জনসভায় নারী ভোটারদের এ হুমকি দেন। স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ চত্বরে দেওয়া তার বক্তব্যের ভিডিও ফেসবুকে ব্যাপক ভাইরাল হয়।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতা দুলু দাবি করেন, তিনি ওই সেন্সে এ কথা বলেননি। তিনি বলতে চেয়েছেন, সরকারের দেওয়া ভোটার আইডিতে নাম থাকায় জনগণ নানা সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন; কিন্তু অন্য কোনো সরকার ক্ষমতায় এলে তারা ভোটার আইডি থেকে তাদের নাম কেটে দিতে পারে। সাংবাদিকরা তার এ বক্তব্যকে জটিল করে উপস্থাপন করছেন।

জানা গেছে, বগুড়া-৭ আসনে আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কার প্রার্থী করা হয়েছে বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা আলম নান্নুকে। শুক্রবার বগুড়ার শাজাহানপুরে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ চত্বরে নির্বাচনি সভা ছিল। মঞ্চে প্রার্থী ছাড়াও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাজেদুর রহমান সাহীন উপস্থিত ছিলেন।

দুলু তার বক্তব্যে বলেন, আজকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীদের সম্মানের আসনে বসিয়েছেন। আইডি কার্ডে মায়ের নাম বসিয়েছেন। বিভিন্ন ভাতা দেওয়াসহ অনেক উন্নয়ন করেছেন। তাই সেই শেখ হাসিনাকে নৌকা মার্কায় ভোট না দিয়ে অন্য কাউকে দিলে ভোটার আইডি থেকে আপনার নাম কর্তন হয়ে যাবে।

তার এ বক্তব্যের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হলে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

জেলা প্রশাসক ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, কেউ কোনো প্রার্থীর পক্ষে এমন বক্তব্য দিলে তা আচরণবিধি লঙ্ঘন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। কেউ অভিযোগ করলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বার্তাবাজার/এম আই