ঢাকায় মেট্রোরেলের শাহবাগ ও কারওয়ান বাজার স্টেশন চালু করা হয়েছে। রোববার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে এ দুটি স্টেশন চালু হওয়ার মাধ্যমে এমআরটি ৬ লাইনের দিয়াবাড়ি থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ১৬ স্টেশনই চালু হলো।

এদিন সকাল ৮টা ৪ মিনিটে বেসরকারি চাকরিজীবী মাহমুদ হোসেন নামেন কারওয়ান বাজার স্টেশনে। মিরপুরের কাজীপাড়া থেকে ১১ মিনিটে কর্মস্থলে পৌঁছেছেন তিনি। আগে ফার্মগেট স্টেশনে নেমে হেঁটে কারওয়ান বাজারে আসতে হতো বলে জানালেন। এখন সরাসরি কারওয়ান বাজারেই নামতে পেরে তিনি অনেক খুশি।

এর আগে, গত ১৩ ডিসেম্বর থেকে ১৩ ও ১৪তম স্টেশন হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বিজয় সরণি চালু হয়। বছরের শেষ দিনে চালু হলো আরও দুটি স্টেশন।

২০১২ সালের জুলাইয়ে মেট্রোরেল প্রকল্প গ্রহণ করে সরকার। এ প্রকল্পের প্রাথমিক বাস্তবায়নের সময় ছিল ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত। পরে সময় বাড়ানো হয়। এমআরটি লাইন-৬ প্রকল্পটি ৩৩ হাজার ৪৭২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে।

মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত মোট ১৭টি স্টেশন রয়েছে। এগুলো হলো- উত্তরা-উত্তর, উত্তরা সেন্টার, উত্তরা দক্ষিণ, পল্লবী, মিরপুর-১১, মিরপুর-১০, কাজীপাড়া, শেওড়াপাড়া, আগারগাঁও, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, শাহবাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, সচিবালয়, মতিঝিল ও কমলাপুর। এর মধ্যে কমলাপুর বাদে বাকি সবগুলো স্টেশন চালু হয়ে গেল। কমলাপুর স্টেশনটি ২০২৫ সাল নাগাদ চালু হওয়ার কথা রয়েছে।

দিনে ১ লাখ ৩০ থেকে ১ লাখ ৫৬ হাজার পর্যন্ত যাত্রী মেট্রোরেলের ট্রেনে ভ্রমণ করেন। গত বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানান মেট্রোরেলের নির্মাণ ও পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক।

দিয়াবাড়ি থেকে মতিঝিল পর্যন্ত সব স্টেশন চালু হলেও আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ট্রেন আগের মতোই সকাল ৭টা ১০ মিনিট থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলবে। আগামী তিন মাসের মধ্যে এই অংশে ট্রেন দিয়াবাড়ি-আগারগাঁও অংশের মতো রাত পর্যন্ত চলবে।

এদিকে গত বছর থার্টি ফার্স্টের রাতে ওড়ানো ফানুসের কারণে মেট্রোরেলের ক্যাটানারিতে পড়ে মেট্রোরেলের ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়েছিল। তাই এবার ফানুস ওড়ানো বন্ধের ব্যবস্থা নিতে ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

বার্তা বাজার/জে আই