নিউজিল্যান্ডের মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয়লাভ করেছে বাংলাদেশ দল। কিউইদের বিপক্ষে ৫ উইকেটের ঐতিহাসিক জয় পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) নেপিয়ারের ম্যাকলিন পার্কে ইতিহাস গড়ার মূল ভিত্তিটা তৈরি করে রেখেছিলেন বাংলাদেশের বোলাররা। টস জিতে প্রথমে বোলিংয়ে নেমে মেহেদী-শরিফুলদের আগুনে বোলিংয়ে ১৩৪ রানে আটকে যায় নিউজিল্যান্ড।

এরপর ১৩৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এক পর্যায়ে বিপর্যয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ দল। তবে লিটন-সৌম্য-তাওহীদের ব্যাটিং নৈপুণ্যে ৮ বল বাকি থাকতেই ৫ উইকেটের জয় পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এই ম্যাচ জয়ের মাধ্যমে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখালেন বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। একমাত্র তার অধীনেই কিউইদের বিপক্ষে তিন ফরম্যাটেই জয়ের স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা। আর কোনো অধিনায়কের নেতৃত্বে একাধিক ফরম্যাটে কিউইদের হারাতে পারেনি বাংলাদেশ।

ওয়ানডে বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পরই টেস্টে নেতৃত্বের অভিষেক হয় নাজমুল শান্তর। মূলত নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও সহ-অধিনায়ক লিটন দাসের অনুপস্থিতিতে গত নভেম্বরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সিরিজে অধিনায়কত্ব দেয়া হয় এই ব্যাটারকে।

বাংলাদেশের ১২তম অধিনায়ক হিসেবে লাল বলের ক্রিকেটে নেতা হিসেবে খেলতে নেমেই জয়ের দেখা পান শান্ত। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সফরকারীদের বিপক্ষে ১৫০ রানের ব্যবধানে জিতেছিল বাংলাদেশ।

ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজ শেষে নিউজিল্যান্ড সফর করছে বাংলাদেশ। এখানেও সাকিবের অনুপস্থিতিতে নেতৃত্ব পান শান্ত। আর নেতা হিসেবে ওয়ানডেতে নেমেও রেকর্ড গড়েছেন। প্রথম দুই ম্যাচ হেরে সিরিজ হাতছাড়া হলেও তৃতীয় ওয়ানডেতে জিতেছে বাংলাদেশ। যা এই ফরম্যাটে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশের প্রথম জয়।

টেস্ট-ওয়ানডের পর এবার টি-টোয়েন্টিতে নেমেও জয়ের দেখা পেলো শান্তর দল। সিরিজের প্রথম ম্যাচেই কিউইদের ৫ উইকেটে হারিয়ে ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ। তাসমান পাড়ের দেশটায় এবারই প্রথম টি-টোয়েন্টি জিতেছে তারা। দলের মতোই ইতিহাস গড়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়কও। বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ফরম্যাটেই জয় পেয়েছেন শান্ত।

বার্তা বাজার/জে আই