সিনামার নায়ক ফেরদৌস। এখন বাড়ি বাড়ি গিয়ে ধরনা দিচ্ছেন ভোটারদের কাছে। নিজের জন্য ভোট চাইছেন, চাইছেন দোয়াও। বৃহস্পতিবার সকালে ধানমন্ডি ১৫ নম্বরে নিজের লিফলেট হাতে নিয়ে চালান প্রচারণা। এসময় বিভিন্ন ভবনের বারান্দা দিয়ে স্থানীয় বাসীন্দারা নায়ক থেকে নেতা হতে চাওয়া ফেরদৌসের প্রচারনার ভিডিও নিজ নিজ মোবাইলে ধারণ করেন।

পরে ফেরদৌস জানান বাসায় বাসায় গিয়ে ভোট চাইতে গিয়ে বিরম্বনার পড়েছেন তিনি। ফ্লাট বাড়িতে ভোট চাইতে গেলে প্রিয় নায়ককে কাছে পেয়ে স্বামীর সামনেই তাকে জড়িয়ে ধরেন কোন কোন নারী ভোটার।

পরে কয়েকটি বাড়িতে তার ভোট চাওয়া ফলো করে টেলিভিশনের ক্যামেরা। কিন্তু ফেরদৌসের দাবি অনুযায়ী বাসিন্দাদের মধ্যে ঢাকাই সিনামার এই নায়ককে নিয়ে তোমন কোন উচ্ছাস দেখা যায়নি।

স্থানীয় ভোটাররা বলছেন প্রার্থীরা আসছেন ভোটের অনুরোধ জানাচ্ছেন। আমরা যোগ্যতা দেখেই ভোট দিবো। মনে হচ্ছে তরুণরাই ভালো কিছু করতে পারবে।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীরা বলছেন কোন নায়কের জন্য নন নৌকা প্রতীকের পক্ষ্যে কাজ করছেন তারা।

নির্বাচিত হতে পারলে অভিজাত ঢাকা ১০ এ নাগরীক সুবিধা আরো বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি দেন ফেরদৌস। বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, রাজনীতির খেলা থেকেই হারিয়েগেছে দলটি।

লাইট ক্যামেরার জগৎ থেকে রাজনীতিরে মাঠে হঠাৎবৃষ্টি খ্যাত চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদ। ডেভ্যু সিনামার মতো প্রথম দফার ভোটেই তিনি বাজিমাত করবেন কিনা তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আসছে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত।

বার্তা বাজার/জে আই