ঢাকার কেরানীগঞ্জে পাওনা ১০০ টাকা চাওয়ায় কাঁচি দিয়ে কুপিয়ে টুটুল দেওয়ান (২৮) নামের এক যুবককে হত্যা করে তারই এক প্রতিবেশী শামীম। নিহত টুটুল পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানার সুলতানাবাদ গ্রামের মৃত আশরাফ দেওয়ানের ছেলে। সে পরিবার নিয়ে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন কালিন্দী বাঁকাচড়াইল এলাকার আনসার হাজির বাড়িতে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছেন।

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর ) রাত আটটার দিকে উপজেলার কালিন্দী বাঁকাচড়াইল এলাকায় তার বাসার সামনে এই ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে দশটায় তার মৃত্যু হয়।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এস আই আব্দুল মোমিন জানান, নিহত টুটুল ও শামীম একই বাড়িতে পাশাপাশি ঘর ভাড়া নিয়ে বসবাস করতেন। তারা দুজনই শ্রমিকের কাজ করেন। বেশ কিছুদিন আগে টুটুলের কাছ থেকে শামীম ৩০০ টাকা ধার নেয় । এর মধ্যে ২০০ টাকা পরিশোধ করলেও ১০০ টাকা পাওনা থাকে টুটুল। গতকাল রাতে শামীমের কাছে পাওনা ১০০ টাকা চাইতে গেলে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। ঝগড়ার এক পর্যায়ে শামীম উত্তেজিত হয়ে পাশে থাকা কেচি নিয়ে টুটুলের বুকের উপর আঘাত করে।পরে স্থানীয়রা দ্রুত টুটুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তফা কামাল জানান, ঘাতক শামীমকে আটক করা হয়েছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে ।

বার্তা বাজার/জে আই