স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে দশ জনের দল নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বসুন্ধরা কিংস। প্রতিযোগিতার ফাইনালে পিছিয়েও পড়েও রোমাঞ্চকর এক জয় ছিনিয়ে নিয়েছে অস্কার ব্রুজেনের শিষ্যরা। মোহামেডানকে ২-১ গোলে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলে নিয়েছে বসুন্ধরা কিংস।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে ২-১ গোলে জিতেছে বসুন্ধরা কিংস। ইনামুয়েলের গোলে মোহামেডান এগিয়ে গেলেও কিংসের জয় নিশ্চিত করেন ফরোয়ার্ড রাকিব হোসেন ও ডরিয়েল্টন গোমেজ।

ফাইনালে ১৪ এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল বসুন্ধরা কিংস। রবসন রবিনহোর দূরপাল্লার শট মোহামেডান গোলকিপার সুজন রুখে দেন। ৩০ মিনিটে সুলেমান দিয়াবাতে ডি-বক্সের ভেতরে পরে গেলে পেনাল্টির দাবি জানায় মোহামেডান। তবে তা নাকচ করে দেন রেফারি। গোলশূন্য ড্রতে শেষ হয় প্রথমার্ধ।

বিরতির পর ছোটো খাটো একটা ঝড় বইয়ে যায় কিংসের ওপর দিয়ে। পাঁচ মিনিটের মধ্যে লালকার্ড ও গোল হজম করে ব্রুজেন শিষ্যরা। ৪৭ মিনিটে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন কিংসের রফিক। দশজনের দলে পরিণত হওয়ার তিন মিনিট পর আরও বড় ধাক্কা খায় তারা। মোজাফফরাভের কর্নার থেকে দারুণ হেডে বল জালে জড়ান মোহামেডানের ইমানুয়েল। তবে ৫২ মিনিটের মাথায় বসুন্ধরাকে সমতায় ফেরায় ফরোয়ার্ড রাকিব হোসেন।

দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা সময় একজন বেশি নিয়ে খেললেও জয় ছিনিয়ে নিতে পারেনি মোহামেডান। উল্টো ৮৫ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ডরিয়েল্টন গোমেজ গোল করে দশজনের কিংসকে শিরোপার স্বাদ দেন। ঢাকা মোহামেডানকে হারিয়ে তৃতীয় স্বাধীনতা কাপ শিরোপা ঘরে তুললো বসুন্ধরা কিংস।

বার্তা বাজার/জে আই