লালমনিরহাটের শ্রেষ্ঠ সন্তান, মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক বাংলাদেশের সংবিধান প্রণেতা সদস্য, সাবেক সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন-এঁর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মৃতিচারণ ও দোয়া অনুষ্ঠিত।

রবিবার (১৭ ডিসেম্বর) লালমনিরহাটের সাপটানা বাজারেট প্রসিদ্ধখ্যাত পাট গুদাম প্রাঙ্গণে স্মৃতিচারণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

বেগম কামরুন নেছা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ (অবঃ) আমিরুল হায়াত আহমেদ মুকুল এঁর সভাপতিত্বে জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল আহাদ লুলুএঁর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন পরিষদের সভাপতি প্রফেসর মোঃ হামিদুল হক, উন্নয়ন কর্মী সুপেন্দ্র নাথ দত্ত, রোটারিয়ান কবি ও সমাজসেবক ফেরদৌসী বেগম বিউটি, ডাঃ আশিক মোস্তাকিন প্রশুন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান সুজন, লালমনিরহাট পৌরসভার সাবেক মেয়র মোঃ রিয়াজুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাড. নজরুল ইসলাম রাজু, নজরুল হক পাটোয়ারী ভোলা, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সাবেক অধ্যাপক মোঃ নজরুল ইসলাম মন্ডল, সহ-সভাপতি নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান দিলু প্রমুখ।

স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে সেময় এ জেলায় যেদিন বঙ্গবন্ধু এসেছিলো তার কথা স্মরণ করিয়ে দেন বক্তারা। এই প্রসিদ্ধ গুদামে বক্তব্য রেখেছিলো জাতির পিতা, সেদিন তিন রিকশা যোগে এসেছিল। প্রয়াত আবুল হোসেনের কৃতকর্মের কথা গুলো অকপটে স্বীকার করেন বক্তারা। রাজনৈতিক আলাপচারিতার করতে গিয়ে গুদামঘরে কখনো রাত পেরিয়ে দিন হয়ে গিয়েছিলো সে কথা গুলো বলেন প্রয়াত আবুল হোসেনের সহচর্যে থাকা অনুরাগীরা। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন লালমনিরহাট নেছারিয়া কামিল মাদ্রাসার শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলাম।

বার্তাবাজার/এম আই