পাবনা জেলা ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে নাম না থাককে কেন্দ্র করে দু‘গ্রুপের হট্টগোল ও চেয়ার ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একে অপরকের দোষারপ করছেন দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা।

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করতে বর্ধিত সভা চলছিল। এ সময় ছাত্রলীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে নাম না থাকার কারন জানতে চান সাবেক জেলা ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য মুস্তাকিম মুহিবসহ কয়েক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। এ নিয়ে জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ
সম্পাদকের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুই পক্ষের নেতাকর্মীদের মাঝে চেয়ার ছুড়াছুড়ি ও ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এ সময় ভাংচুর করা হয় পার্টি অফিসের চেয়ার টেবিল।

পরে জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে পরিস্ত্রিতি শান্ত হয়। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত জেলা ছাত্রলীগের সাবেক কার্যকরী সদস্য মুস্তাকিম মুহিব ও তার সমর্থকরা।

বার্তাবাজার/এম আই