শ্রীলঙ্কার সাবেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান উপল থারাঙ্গাকে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাচক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আর নির্বাচক প্যানেলে যুক্ত করা হয়েছে সাবেক স্পিনার অজান্তা মেন্ডিসকে। এছাড়াও আছেন ইন্দিকা ডি সারাম, থারাঙ্গা প্রাণাভিতানা ও দিলরুয়ান পেরেরা। এর আগে অল্প সময়ের ব্যবধানে অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটারদের নিয়ে নির্বাচক প্যানেল গঠনের নজির দেখায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

এসএলসি নিজেদের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পোস্টে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। থারাঙ্গা নেতৃত্বাধীন এই কমিটির মেয়াদ দুই বছর। সর্বশেষ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর নতুন করে শুরু করতে চায় লঙ্কানরা। বিশ্বকাপে ৯ ম্যাচের মাত্র দুটিতে জেতায় তারা ইতোমধ্যে ২০২৫ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি থেকে ছিটকে গেছে।

জানুয়ারিতে লঙ্কানদের মাটিতে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে যাচ্ছে জিম্বাবুয়ে। এর আগে ২০২২ সালের জানুয়ারির পর দু’দল কোনো ওয়ানডে সিরিজও খেলেনি। ফলে দীর্ঘ দুই বছর পর এবার ৫০ ওভারের সিরিজেও মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে। আর এই সিরিজ দিয়েই থারাঙ্গা-মেন্ডিসদের নির্বাচক কমিটি কাজ শুরু করবে। এভাবে কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজের পর তাদের মূল পরীক্ষা হবে আগামী বছরের জুনে শুরু হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে।

সরকারি হস্তক্ষেপে আপাতত আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় আছে এসএলসি। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে বাধা নেই শ্রীলঙ্কার। যদিও নতুন নির্বাচক কমিটিকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্ডোই নিয়েছেন বলে এসএলসি জানিয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার এসএলসিকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত তুলে নেওয়ার কথা জানান দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী। একইসঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করেন যে— শিগগিরই এসএলসির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলও (আইসিসি)।

নতুন গঠিত কমিটির চেয়ারম্যান পাঁচজনের মধ্যে সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। লঙ্কানদের হয়ে ৩১টি টেস্ট, ২৬টি টি-টোয়েন্টি ও ২৩৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান। যেখানে ওডিআইতে ১৫টি শতক ও ৩৭টি অর্ধশতক আছে তার। এছাড়া রহস্যময় স্পিনার মেন্ডিসও তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে বেশ আলোচিত ছিলেন। তিনি এখনও ম্যাচের হিসাবে দ্রুততম সময়ে (১৯) আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৫০টি উইকেটের রেকর্ডের মালিক। মেন্ডিস ৮ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানেন ২০১৫ সালে।

এছাড়া কমিটিতে থাকা সাবেক অফ স্পিনার পেরেরা ৪৩ টেস্ট, ১৩টি ওয়ানডে এবং সাবেক ব্যাটসম্যান পরানাভিতানা খেলেছেন ৩২টি টেস্ট। ৪টি টেস্ট ও ১৫টি ওয়ানডে খেলেছেন ডি সরম।

বার্তা বাজার/জে আই