বর্তমান সরকারের পতন না হওয়া পর্যন্ত রাজপথে থাকার ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে রোববার (১০ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, ফ্যাসিস্ট সরকারের বিরুদ্ধে দেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধ। আমরা রাজপথে আছি, রাজপথে থাকবো। মিছিলে মিছিলে বাংলাদেশ ভরে দেবো। তবুও আমরা এই সরকারের নির্বাচন মানবো না।

বিএনপির এই নেত্রী বলেন, ডান-বাম সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে এই সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে। শিগগির দেশের জনগণ আওয়ামী সরকারের পতন ঘটাবে।

সেলিমা রহমান বলেন, গত ২৮ অক্টোবরের পর সারাদেশে প্রায় ২০ হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অনেকেই ঘরে ঘুমাতে পারে না। ছেলেকে না পেলে পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কারাগারে নেতাকর্মীদের ন্যায্য অধিকারও দেওয়া হচ্ছে না।

দেশের বিচার বিভাগএকজনের নির্দেশে চলছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিশ্বের কোথাও বাংলাদেশের মতো মানবাধিকার লঙ্ঘন নেই। সরকার বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ অনেকগুলো কার্যালয় বন্ধ করে রেখেছে।

জনগণের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, অপনারা এই সরকারকে না বলুন। দোকানপাট বন্ধ রাখুন। বিদেশ ভ্রমণ বাদ দিন। দেশে নিত্যপণ্যের দাম আকাশছোঁয়া। পেঁয়াজের কেজি কত? এভাবে বেশিদিন চলবে না।

মানববন্ধনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুক, কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক কায়সার কামাল, মহিলাদলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, এ্যাবের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হাছিন আহমেদ ও চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদারসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

বার্তা বাজার/জে আই