বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারণে দলটির সর্বনাশ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান রঞ্জন। বিএনপির এই সাবেক সংসদ সদস্য বলেন, ফাঁকা বুলিতে বিএনপি আর কতদিন চলবে? মহাসচিবকে (মির্জা ফখরুল) হাইকোর্ট থেকে জামিন দেয় না, আর তারা আঙ্গুল চোষে।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) বিকেলে নির্বাচন কমিশনে মনোনয়ন বাতিলের আপিল শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

আখতারুজ্জামান বলেন, আমি বিএনপির বর্তমান কার্যকলাপের বিরুদ্ধে প্রকাশ্য বিদ্রোহ করেছি। আমি তারেক রহমানের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে বিদ্রোহ করেছি। উনি যেভাবে দলকে চালাচ্ছেন, সেভাবে দলের সর্বনাশ হয়ে যাচ্ছে। লক্ষ লক্ষ নেতাকর্মী আজ গৃহহারা, তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মতো ভদ্রলোককে উচ্চ আদালত জামিন দেয়নি। এর চেয়ে নির্মমতা আর কী হতে পারে। কেন আমরা এমন একটা কাজ করলাম যে প্রধান বিচারপতির বাড়িতে হামলা করবে। কেন কর্মীদের উপর আমাদের নিয়ন্ত্রণ নেই? কী রাজনীতি করি আমরা?

তিনি আরও বলেন, আমাকে দেড় বছর ধরে বহিষ্কার করে রেখেছে বিএনপি। তাহলে আমি বিএনপির সিলটা কেন ব্যবহার করতে যাব? আমাকে ন্যূনতম সদস্যও রাখা হয়নি। তাই আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছি।

মনোনয়নপত্র বাতিল প্রসঙ্গে আখতারুজ্জামান বলেন, ইসি থেকে আমাকে জানানো হয়েছে, আমি মামলা সম্পর্কে লিখিনি। এত হাজার হাজার কেস জীবনে খেয়েছি এবং আরও খাচ্ছি। কোথাও লেখার জায়গা নেই। লেখা আছে অতীত সব মামলা। অনেক মামলায় তো নেতারা খালাস পেয়েছেন। আমরা যেসব মামলায় খালাস পেয়েছি, সেসব কেন লিখতে হবে? আপিল করেছি, আশা করছি প্রার্থিতা ফিরে পাব।

বার্তা বাজার/জে আই