নীলফামারীতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাকেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহারের অভিযোগে তিন পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়েছে। আজ শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে জেলার সৈয়দপুর উপজেলায় তিন পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে তাঁদের আটক করে গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

আটককৃতরা হলেন- নীলফামারী সদর উপজেলার কচুকাটা এলাকার আপন চন্দ্রের ছেলে তমাল চন্দ্র (২৫), একই উপজেলার পঞ্চপুকুর এলাকার হামিদুল ইসলামের মেয়ে রাফিয়া আকতার (২৩) এবং ডিমলা উপজেলার পূর্ব খড়িবাড়ী গ্রামের মুসা মিয়ার ছেলে ওমর ফারুক (২৭)। তাদের মধ্যে তমাল চন্দ্রকে সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, রাফিয়া আক্তারকে সৈয়দপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এবং ওমর ফারুককে কয়াগোলাহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্র থেকে আটক করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সৈয়দপুর সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, কয়া গোলাহাট স্কুল অ্যান্ড কলেজ এবং সৈয়দপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ কেন্দ্রে তিন পরীক্ষার্থী ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও মোবাইল ফোন ব্যবহার করে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। পরে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা তাঁদের আটক করে কেন্দ্রসচিবকে অবগত করেন। পরে কেন্দ্রসচিব আটকদের পরীক্ষাকেন্দ্রে কর্তব্যরত পুলিশের হাতে তুলে দেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অসদুপায়ের ঘটনায় তিনটি কেন্দ্র থেকে তিন পরীক্ষার্থী আটক হয়েছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

বার্তা বাজার/জে আই