রাজধানীর গুলশান-২ এর ১১১ নম্বর রোডে হক গ্রুপের চেয়ারম্যান আদম তমিজি হকের বাসায় বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) রাতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। এ সময় ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যার হুমকি দেন তিনি। পরে তাকে গ্রেফতার না করে ফিরে আসেন র‌্যাবের সদস্যরা।

এদিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তমিজি হককে গ্রেফতার না করার বিষয়টি জানান র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, রাত ৯টার দিকে র‌্যাব–১ এর একটি দল আদম তমিজি হকের বাসায় অভিযান শুরু করে। একপর্যায়ে গ্রেফতার করা হলে আত্মহত্যার হুমকি দেন তমিজি। এমনকি স্ত্রীকেও হত্যার হুমকি দেন এই ব্যবসায়ী। সবকিছু মিলিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকায় তাকে গ্রেফতার করিনি।

খন্দকার আল মঈন বলেন, এক বিদেশি নাগরিক তমিজির বাসায় অবস্থান করছেন। তবে তিনি তার বন্ধু বলে জানা যায়।

ওই লাইভে দেখা যায়, তমিজি তার বাসার বিভিন্ন আসবাবপত্র ভাঙচুর করছেন। লাইভে শ্রমিকদেরও ডাকেন তিনি।

তমিজি হকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তাসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। সম্প্রতি তিনি দেশে ফিরেছেন এমন খবরে তার বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। গুলশানের ১১১ নম্বর রোডের ৮নম্বর ওই বাসাটি ঘিরে রাখা হয়েছে।

সম্প্রতি রাজনৈতিক বিভিন্ন ইস্যুতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লাইভে এসে সরকারের সমালোচনা করেন তমিজি হক। প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কথিত উপদেষ্টা মিয়ান আরেফির সঙ্গে যোগসাজশের অভিযোগও রয়েছে তার।

বার্তা বাজার/জে আই