অবৈধ ভাবে পাচার কালে কক্সবাজারের টেকনাফে ৩ লাখ ৮০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারের করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।
এসময় কাউকে আটক করা যায়নি।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ১১ টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোঃ মহিউদ্দীন আহমেদ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ( ১৬ নভেম্বর) মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি চালান বাংলাদেশে প্রবেশের গোপন সংবাদ ভিত্তিতে টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়ন বিজিবি অভিযান পরিচালনা করে ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো আটক করে।

টেকনাফ নাজিরপাড়া বিওপি’র দায়িত্বপূর্ণ বিআরএম-৫ হতে আনুমানিক ১ কিঃ মিঃ উত্তর দিকে আলুগোলা স্লুইচ গেইট নামক এলাকায় বেড়িবাঁধের আড়ালে কৌশলে অবস্থান করে বিজিবি টহলদল। এসময় বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে টহলদল ৪ জন ব্যক্তিকে কয়েকটি প্লাষ্টিকের বস্তা মাথায় নিয়ে নাফ নদী পার হয়ে সীমান্তের শূণ্য লাইন অতিক্রম করে বাংলাদেশের সীমানায় আলুগোলা স্লুইচ গেইটের দিকে আসতে দেখে।

ওই ব্যক্তিদের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় টহলদল তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে চোরাকারবারিরা মাথায় থাকা বস্তাগুলো ফেলে দৌড়ে নাফ নদীর পার্শ্বে ঘন কেওড়া বাগানের ভিতরে পালিয়ে যায়। পরে টহলদল ওই স্থানে পৌঁছে চোরাকারবারীদের ফেলে যাওয়া ২টি প্লাস্টিকের বস্তা উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত বস্তার ভিতর হতে ৩ লাখ ৮০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়।

এদিকে চোরাকারবারীদের সনাক্ত করার জন্য ২ ব্যাটালিয়ন বিজিবি’র গোয়েন্দা কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলে বিজিবি সূত্রে জানা গেছে।

বার্তা বাজার/জে আই