জাতীয় নির্বাচনের তপশিল ঘোষণার প্রায় ঘন্টাখানেক আগে গুরুদাসপুরে একটি কাভার্ড ভ্যানে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহা সড়কের গুরুদাসপুর অংশের নয়াবাজার আড়ইমারী এলাকায় ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে বনপাড়া ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে কাভার্ড ভ্যানের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ততক্ষণে কাভার্ড ভ্যানটির সামনের অংশ পুড়ে গিয়ে ব্যপক ক্ষতি হয়েছে। কাভার্ড ভ্যানের আগুনের ফলে মহাসড়কের দুই পাশে প্রায় ঘন্টাখানেক যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। পরে গুরুদাসপুর থানার পুলিশ গিয়ে যানচলাচল স্বাভাবিক করে।

কাভার্ড ভ্যানের চালকের সহকারি আশিক হোসেন (২৫) জানান, সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া-শাহজাদপুর এলাকা থেকে প্রাণ কোম্পানির মাল বহনকারী একটি কাভার্ড ভ্যান (ঢাকা মেট্টো উ ১২-৩৬২৩) নিয়ে নাটোরে যাচ্ছিলেন তারা। পথে মহাসড়কের আড়ইমারী এলাকায় ২০ থেকে ২৫ জনের মতো দুর্বৃত্ত গাড়ির গতি রোধ করে ঢিল ছোড়েন। গাড়ি না থামালে গুলি ছোড়ার হুমকি দেন। একপর্যায়ে চালক ভয় পেয়ে কাভার্ড ভ্যানটি থামিয়ে দেন।

তিনি বলেন, পথ রোধ করা দুর্বৃত্তদের হাতে লাঠি ছিল। চালক গাড়ি থেকে সড়কে নামার পর পরই দুর্বৃত্তরা চালককে মারধর করেন। এসময় তিনি প্রাণ ভয়ে দৌড়ে পালান। পরে এসে দেখেন গাড়িতে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে।

বনপাড়া ফায়ার স্টেশনের মাস্টার আকরামুল হাসান তুষার জানান, সন্ধ্যা ছয়টার কিছু পরে তারা অগ্নিকাণ্ডের খবর পান। এরপর তাদের অগ্নিনির্বাপন দুইটি দল সেখানে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে কাভার্ড ভ্যানটির সামনের অংশ পুড়ে ব্যপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোনোয়ারুজ্জামান বলেন, কাভার্ড ভ্যানে আগুনের ঘটনায় থানায় নাশকতার মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। দুর্বৃত্তদের অগ্নিকান্ডের পূণরাবৃত্তি যেন না ঘটে, সেজন্য মহাসড়কে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আগুন দেওয়া ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

এদিকে আগুনের পর পরই আওয়ামী লীগের দুইটি পক্ষ পৃথকভাবে লাঠি হাতে মোটরসাইকেল মহড়া দেয়। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন জানান, বিএনপি-জামায়াতের লোকজন আওয়ামী লীগের সামনে আসতে না পেরে দুর্বৃত্ত সেজে যানবাহনে আগুন দিচ্ছে। জামায়াত-বিএনপির এসব নাশকতা রোধে তারা সার্বক্ষণিক মাঠে থাকবেন।

এর আগে ২৯ অক্টোবর দিবাগত মধ্যরাতে গুরুদাসপুর পৌর শহরের চাঁচকৈড়বাজারে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় দায়ের করা নাশকতা মামলা এ পর্যন্ত জামায়াত-বিএনপির অন্তত ১০ নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে ঢাকার সমাবেশের পর থেকেই জামায়াত-বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের পদধারী নেতারা গ্রেপ্তার আতংকে গা ঢাকা দিয়ে আছেন।

বার্তা বাজার/জে আই