আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর শেষে গত রোববার (১২ নভেম্বর) ঢাকায় ফিরেছে বাংলাদেশ দল। দলের সঙ্গে এদিন প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেও ঢাকায় পা রেখেছেন।

এদিকে বিশ্বকাপের অধ্যায় চুকিয়ে আগামী ২১ নভেম্বর ঢাকায় পা রাখবে নিউজিল্যান্ড দল। আগামী ২৮ নভেম্বর থেকে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে মাঠে গড়াবে দুই দলের প্রথম টেস্ট।

তাই এখনই বিশ্রামের সুযোগ পাচ্ছে না লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। কেননা, নভেম্বরের শেষ সপ্তাহেই শুরু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ।

এ ছাড়া সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচ হবে ৬ ডিসেম্বর থেকে মিরপুর শেরে-ই বাংলা স্টেডিয়ামে। এ সিরিজটি আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

দুই ম্যাচ সিরিজের এ সফরের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। এ স্কোয়াডে এজাজ প্যাটেল, মিচেল স্যান্টনারের সঙ্গে রাচিন রবীন্দ্র ও ইশ সোধির মতো একাধিক স্পিনার রয়েছেন। তবে এই সিরিজের জন্য এখনও দল ঘোষণা করেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

আসন্ন এই সিরিজকে সামনে রেখে দল নির্বাচনে মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) মিটিংয়ে বসবেন বিসিবির নির্বাচকরা। গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

এদিকে গুঞ্জন রয়েছে, সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে প্রথম টেস্ট থেকে ছুটি চেয়েছেন লিটন দাস!

এ প্রসঙ্গে বিসিবির নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনের ভাষ্য, লিটন এখনও এ বিষয়ে বোর্ডকে কিছুই জানায়নি। তবে প্রধান নির্বাচক নান্নুর দাবি, লিটনের থেকে ছুটির কোনো চিঠি তারা পাননি।

তবে লিটন না থাকলেও নতুন বিপদে পড়বে টিম ম্যানেজমেন্ট। কেননা, এই সিরিজে পেসার তাসকিন আহমেদের সার্ভিস মিস করবে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে নির্বাচকদের জন্য টেস্ট দল নির্বাচন করা এবার একটু কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।

তাসকিন ছাড়াও এই সিরিজে থাকছেন না ওপেনার তামিম ইকবাল। এই সিরিজের প্রথমটিতে থাকছেন না টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও। বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আঙুলে চোট পেয়ে আসর থেকে ছিটকে যান বাংলাদেশের অধিনায়ক। তবে দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে তিনি মাঠে ফিরতে পারেন। ইনজুরির কারণে থাকবেন না আরেক পেসার এবাদত হোসেনও।

বার্তা বাজার/জে আই