হরতাল অবরোধের নামে দেশের সম্পদ ধ্বংসের বিপক্ষে এবং জ্বালাও পোড়াও অপছন্দ, সে জন্য সুনামগঞ্জের বিএনপির শতাধিক নেতা-কর্মী বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন।

রোববার (১২ নভেম্বর) রাতে জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলায় রাজনৈতিক দল পরিবর্তনের এ ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তাদের বরণ করে নিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ব্যক্তিগত সহকারী হাসনাত হোসাইন।

জানা গেছে, উপজেলার পূর্ব পাগলা ইউনিয়নের আলমপুরে বরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ। উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও সাবেক ইউপি সদস্য ইয়াহিয়া আহমদ সুমনের নেতৃত্বে পূর্ব পাগলায় ইউনিয়ন পর্যায়ের দায়িত্বশীল বিএনপি নেতা-কর্মীরা এই অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। শনিবার (১১ নভেম্বর) পূর্ব পাগলা ইউনিয়ন বিএনপির আরো কয়েকজন নেতা-কর্মী আওয়ামী লীগে যোগ দেন। তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি নূর হোসেন।

ইয়াহিয়া আহমদ সুমন বলেন, আমরা হরতাল অবরোধের নামে দেশের সম্পদ ধ্বংসের বিপক্ষে। এমন জ্বালাও পোড়াও আমরা পছন্দ করি না। এসবের প্রতিবাদে নেতা-কর্মীদের নিয়ে পদত্যাগ করে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি।

তিনি বলেন, আমাকে যখন দায়িত্বশীল নেতারা বোমা হামলা, গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন সন্ত্রাস করতে নির্দেশ দেন তখন আমার বিবেক নাড়া দিয়েছে। তাই এই নির্দেশ অমান্য করে আমি পদত্যাগ করে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি।

শান্তিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত হোসেন বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আয়োজনে শতাধিক বিএনপি নেতা-কর্মী আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। আমরা তাদের ফুল দিয়ে বরণ করেছি। তারা বিএনপির জ্বালাও পোড়াও আদেশ অমান্য করে আওয়ামী লীগের উন্নয়নের সঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। তাদেরকে আমরা স্বাগত জানিয়েছি।

বার্তা বাজার/জে আই