বিএনপি মূলত একটি বিদেশ নির্ভর রাজনৈতিক দল এমনটা জানালেন সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীব। সোমবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নৌকার পক্ষে স্থানীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে এক গণসংযোগ কর্মসূচি পালন শেষে সাভার উপজেলা কমপ্লেক্সে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

এসময় রাজীব বলেন, আগামী জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং এই দেশের মানুষের নিরাপত্তার স্বার্থে ও অর্থনৈতিক মুক্তির স্বার্থে দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে নির্বাচিত করার লক্ষ্যে আমরা সাভারের ঘরে ঘরে প্রতিটি মানুষের কাছে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে এব্যাপারে দলের শীর্ষ পর্যায় থেকে আমাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে মানুষের সাথে মত বিনিময় করতে এবং কি কি কারণে আবারও আওয়ামী লীগকে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়া উচিৎ সেগুলো মানুষের কাছে তুলে ধরতে। তারই অংশ হিসাবে আমরা কিছুদিন যাবত সাভারের বিভিন্ন এলাকায়, গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে নৌকা প্রতীকের পক্ষে গণসংযোগ করছি এবং নৌকা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করছি। আজ (সোমবার) সাভার পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় আমাদের দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ স্বতঃস্ফুর্তভাবে অংশ নিয়েছে।

রাজীব বলেন, ২০১৩-১৪ সালে বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলন করে পাঁচ শতাধিক মানুষ হত্যা করেছে, স্কুল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে। এসব এখন আর সাধারণ মানুষ পছন্দ করছে না। পাশাপাশি, এবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং সকল সহযোগী সংগঠন সতর্ক অবস্থানে আছে। আসলে বিএনপি একটি বিদেশ নির্ভর রাজনৈতিক দল, আর আওয়ামী লীগ হলো গণমানুষের রাজনৈতিক দল। আমি বিশ্বাস করি এবং আশাবাদ ব্যক্ত করি শুধু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই নয় বরং দেশের সকল মানুষের নাগরিক দায়িত্ব এদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা এবং এদেরকে প্রতিহত করা। প্রতিটি নাগরিকের তার নিজ সম্পদ রক্ষা এবং জানমাল রক্ষার সাংবিধানিক অধিকার আছে। আমি বিশ্বাস করি প্রতিটি নাগরিকই তাদের সেই দায়িত্ব পালন করবে, এদের প্রতিহত করবে এবং ইতোমধ্যেই সেটা শুরু হয়ে গেছে।

নির্বাচন যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রাজীব বলেন, দেশে যথাসময়েই নির্বাচন হবে এবং না হওয়ার মতো কোনো পরিস্থিতি দেশে তৈরী হয়নি। কে ঠেকাবে নির্বাচন? এই যে তারা অবরোধ ডেকেছে, তাদের ডাকা অবরোধে আমরা গাড়ি নিয়ে রাস্তায় জ্যামে বসে থাকি। এদের কথা কেউই শুনেনা। এখন অবরোধ ডেকে তারা নিজেরাই শরম পেয়েছে।

ঢাকা-১৯ আসন থেকে এবার তিনি মনোনয়ন চাইবেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মঞ্জুরুল আলম রাজীব বলেন, আমি বিশ্বাস করি যার সাথে তৃণমূলের নেতাকর্মী এবং গণমানুষের যোগাযোগ আছে, সাধারণ মানুষ যাকে চায় যে তিনি শেখ হাসিনার প্রতিনিধিত্ব করুন, সেই ধরনের ব্যক্তিকেই দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশের অন্যান্য আসনের মতো সাভারেও মনোনয়ন দেবেন। আমি শতভাগ বিশ্বাস করি, যাদের সাথে দলীয় কর্মীর কোনো সম্পর্ক নাই, সাধারণ মানুষের কোনো সম্পর্ক নাই, এধরণের কাউকে দেশরত্ন শেখ হাসিনা ঢাকা-১৯ আসনে মনোনয়ন দেবেন না।

এর আগে, শত শত দলীয় নেতাকর্মী সমন্বয়ে মঞ্জুরুল আলম রাজীব সাভার উপজেলা পরিষদ থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। পরে সাভার গেন্ডা এলাকার ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক ধরে নৌকা প্রতীকের পক্ষে ভোট প্রার্থনা করেন এবং সাভার পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন।

গণসংযোগ কালে এসময় সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভাকুর্তা ইউপি চেয়ারম্যান হাজী মোঃ লিয়াকত হোসেন, বনগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলাম, আমিনবাজার ইউপি চেয়ারম্যান রকিব আহমেদ, ঢাকা জেলা উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সায়েম মোল্লা প্রমুখসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বার্তাবাজার/এম আই