বিএনপি-জামায়াতের ডাকা তৃতীয় দফার অবরোধের প্রথম দিন একের পর এক গাড়িতে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটছে। দিনের বেলায় কোনো অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা না ঘটলেও সন্ধ্যা নেমে আসার পরই তিন জেলায় পাঁচটি পরিবহনে আগুন দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসব গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে মাত্র দুই ঘণ্টার ব্যবধানে। এর মধ্যে ঢাকায় তিনটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। রাজধানীর বাইরে বরগুনায় একটি বাসে এবং বগুড়ায় একটি ট্রাকে আগুন দেওয়া হয়।

বুধবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে ৯টা ২২ মিনিটের মধ্যে এসব যানে আগুন দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে পাঁচটি গাড়িতে আগুন দেওয়ার তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় রাজধানীর তাঁতীবাজার মোড়ে আকাশ পরিবহনের একটি বাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে সদরঘাট ফায়ার স্টেশন থেকে দুটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এর আধা ঘণ্টা পর রাত আটটা নাগাদ বনানী এলাকার কাকলি পুলিশ ফাঁড়ির সামনে একটি মিনিবাসে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা। কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশন থেকে দ্রুত তাদের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়৷ তবে ফায়ার সার্ভিস পৌঁছানোর আগেই স্থানীয় লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেলে।

রাত নয়টা ২০ মিনিটের দিকে আবারও আগুনের খবর আসে। এবার অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয় রমজান পরিবহনের একটি বাস। বাসটি পোড়ে জিগাতলা পিলখানার সামনে। এ ঘটনায় হাতেনাতে একজনকে আটক করার তথ্য পাওয়া গেছে৷ তবে প্রাথমিকভাবে আটককৃতের পরিচয় জানা যায়নি।

রাজধানীর বাইরেও দুটি পরিবহনে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটে। অগ্নিকাণ্ডের শিকার হয়েছে একটি বাস ও একটি ট্রাক।

ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রাত ৮টা ৫৫ মিনিটে তারা বগুড়ার শিবগঞ্জের চন্ডিগড়া এলাকায় একটি ট্রাকে আগুনের দেওয়ার খবর পান। পরে শিবগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভায়।

এরপর রাত ৯টা ২২ মিনিটে ফায়ার সার্ভিস বরগুনার আমতলিতে অগ্নিকাণ্ডের তথ্য পায়। ঘটনাটি ঘটে উপজেলার হাড় পাঙ্গাসিয়া এলাকায়। সেখানে আগুন দেওয়া হয় সাকুরা পরিবহনের একটি বাসে। আমতলী ফায়ার স্টেশনের দুটি ইউনিট পুলিশ নিরাপত্তায় ঘটনাস্থলে কাজ করে।

বার্তা বাজার/জে আই