চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে ৫ বন্ধু মিলে নদীতে গোসলে গিয়ে পানিতে ডুবে একজন নিহত এবং আর একজন নিখোঁজ হয়েছে। বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার ছত্রাজিতপুর ইউনিয়নের পাগলা নদীর বহালাবাড়ি ঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

মৃত লিজা খাতুন (১১) ছত্রাজিতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী এবং এ ঘটনায় একই প্রতিষ্ঠানের একই ক্লাশের নিখোঁজ অপর শিক্ষার্থী নাঈমা খাতুন (১১)। মৃত শিক্ষার্থী ছত্রাজিতপুর-খুলিপাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে এবং নিখোঁজ শিক্ষার্থী বহলাবাড়ি গ্রামের নাজমুল হকের মেয়ে।

ছত্রাজিতপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আবদুল কাইয়ুম জানান,সকাল ১১টার দিকে পাগলা নদীর বহালাবাড়ি ঘাটে গোসল করতে যায় লিজা ও নাঈমা খাতুনসহ পাঁচ সহপাঠী। এ সময় তিনজন সাঁতরে উঠতে পারলেও লিজা ও নাঈমা পানিতে ডুবে যায়।

পরে স্থানীয়রা শিবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। খবর পেয়ে শিবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও রাজশাহী ডুবরীদল যৌথভাবে নদীতে উদ্ধার অভিযান চালিয়ে দুপুর ২টার দিকে লিজার মরদেহ উদ্ধার করে।তবে অপরজনের লাশ উদ্ধার করতে পারেনি।

শিবগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সাব-অফিসার আকবর আলী জানান,পাগলা নদীতে নিখোঁজ নাঈমা খাতুনের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান কাজ চলছে। সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত নিখোঁজ শিশুটির লাশ পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি চৌধুরী জোবায়ের আহাম্মদ জানান,অভিযোগ না থাকায় পরিবারের নিকট লিজার মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

বার্তা বাজার/জে আই