ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ কুকের বাসভবনে বিএনপির কয়েকজন নেতা বৈঠক করেছেন। বৈঠকের বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি কোনো পক্ষ। তবে বিএনপির এক নেতা জানায়, চলমান রাজনৈতিক ইস্যুসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বৈঠকে।

সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেল সোয়া ৪টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী বারিধারায় ব্রিটিশ হাইকমিশনারের বাসভবনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে বিএনপির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ।

বাংলাদেশ সফররত ব্রিটিশ আন্ডার সেক্রেটারি ফিলিপ বার্টন ছাড়াও ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ কুক এবং ব্রিটিশ হাইকমিশনের পলিটিক্যাল কাউন্সিলর টিমোথি ডকেট উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর মোবাইলে কল করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।

তবে চলমান রাজনৈতিক ইস্যুর দিকে ইঙ্গিত করে শামা ওবায়েদ বলেন, ব্রিটিশ একজন প্রতিনিধি ঢাকায় এসেছেন আমরা তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছি।

এর আগে দুই দিনের সফরে সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকা‌লে ঢাকায় এসে পৌঁছান যুক্তরাজ্যের ফরেন, কমনওয়েলথ এবং ডেভেলপমেন্ট (এফসিডিও) অফিসের পারমেন্যান্ট আন্ডার সেক্রেটারি ফিলিপ বার্টন।

ঢাকার ব্রিটিশ হাইকমিশন জানায়, পঞ্চম যুক্তরাজ্য-বাংলাদেশ কৌশলগত সংলাপে যোগ দিতে ঢাকায় আসছেন ফিলিপ বার্টন। প্রায় দুই বছর পর অনুষ্ঠেয় এই সংলাপে লন্ডনের গুরুত্ব মানবাধিকার, গণতন্ত্র, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, শ্রম অধিকার ও বাংলাদেশের আগামী নির্বাচন হলেও ঢাকার পক্ষ থেকে বন্দি বিনিময় এবং আইনি সহায়তায় মিউচুয়াল লিগ্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স চুক্তির বিষয়ে প্রাধান্য দেওয়া হবে।

একই সঙ্গে এই সংলাপ দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সহযোগিতা বৃদ্ধি এবং কপ২৮ ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় সহায়তা বৃদ্ধির সুযোগ সৃষ্টি করবে। এবং যুক্তরাজ্যের শক্তিশালী অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিনিয়োগ প্রস্তাব তুলে ধরবে। সংলাপে সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

ঢাকায় সফরকালে যুক্তরাজ্যের আন্ডার সেক্রেটারি ফিলিপ দেশের রাজনীতিবিদ, সুশীল সমাজ, ব্যবসায়ী ও তরুণ নেতৃত্বের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে জানানো হয়।

বার্তা বাজার/জে আই