আগামী ৫ অক্টোবর ভারতের মাটিতে শুরু হবে ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসর। আসন্ন বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রত্যকে দলকে প্রাথমিক স্কোতাড ঘোষণার সময় বেঁধে দিয়েছিল আইসিসি। তবে বিশ্বকাপের দল এখনো ঘোষণা করেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

টাইগারদের বড় চিন্তার জায়গা ওপেনিং ও সাত নম্বর পজিশন। সাত নম্বরের সমাধানে চার প্লেয়ারকে নিয়ে এশিয়া কাপ খেলতে গেছে সাকিব বাহিনী। তবে এই পজিশনে কেউই এখন পর্যন্ত সামর্থ্যের প্রমাণ দিতে পারেননি। তাই বিশ্বকাপের স্কোয়াডে সাত নম্বর পজিশনে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে দেখতে চান বাংলাদেশের অনেক ক্রীড়াপ্রেমী।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় একটি জরুরি মিটিংয়ে অংশ নিতে কলম্বোতে পৌঁছান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। রিয়াদকে এখনো দল থেকে বাদ দেওয়া হয়নি বলে জানান তিনি। একইসাথে আসন্ন নিউজিল্যান্ড সিরিজের দলে যে তিনি থাকবেন, তাও নিশ্চিত করেছেন বোর্ড সভাপতি।

সেখানে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে পাপন জানান, রিয়াদকে নিয়ে এখনো আশার আলো দেখছেন তিনি। পাপন বলেন, বিশ্বকাপের আগে আমাদের একটা নিউজিল্যান্ড সিরিজ আছে। নিউজিল্যান্ড সিরিজে অবশ্যই রিয়াদ খেলবে। ওখানে খেলার পর বলতে পারব আসলে আমাদের বিশ্বকাপ স্কোয়াডটা কী হবে।

এশিয়া কাপের আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে খেলেননি রিয়াদ। তখন তিনি পবিত্র হজ পালন করতে গিয়েছিলেন। দেশে থাকলে দলে থাকতেন রিয়াদ, দাবি পাপনের। তার মতে, হঠাৎ করে রিয়াদকে এশিয়া কাপে নিতে চায়নি দল।

পাপন বলেন, এখন আমরা খেলছি এশিয়া কাপ। এশিয়া কাপের আগে যে সিরিজটা হয়েছিল, ওই সময় রিয়াদ যদি দেশে থাকত অবশ্যই খেলত। ও দেশে ছিল না খেলতে পারেনি। এত লম্বা গ্যাপ যাওয়ার পর একজনকে হঠাৎ করে এশিয়া কাপে আনা….আমার মনে হয় সেজন্যই নেওয়া হয়নি।

পাপন বলেন, খুব একটা অপশন যে সব জায়গায় আছে তা না। বিশ্বকাপে নিশ্চিত আমাদের একজন অতিরিক্ত বোলার লাগবে। মাঠ দেখে কোনো জায়গায় একজন বেশি স্পিনার দরকার, কোনো জায়গায় চারজন পেসারও খেলাতে হতে পারে। রিয়াদকে নিতে চাইলে তো বাদ দেওয়ার একমাত্র অপশন মেহেদী হাসান মিরাজ। এখন যদি উনারা মনে করেন, মিরাজকে বাদ দেওয়াটা ঠিক হবে না- সেটা কি অন্যায় হবে? এগুলো নিয়ে অনেক আলাপ আছে, হিসাব আছে। আবেগী কথা বলে লাভ নেই। আমরা সবাই চাই রিয়াদ খেলুক। খেললে আমরা খুশি হব। ওকে তো বাদ দেওয়া হয়নি। আমি এখনো আশাবাদী। নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষে আমরা স্কোয়াড বুঝতে পারব।

বিশ্বকাপের আগে চলতি মাসেই বাংলাদেশ সফরে আসবে নিউজিল্যান্ড। মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ২১, ২৩ ও ২৬ তারিখ তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে যাবে তারা। ইতোমধ্যে এই সিরিজের দলও ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড। বিশ্বকাপ শেষে আবার টেস্ট সিরিজ খেলতে আসবে নিউজিল্যান্ড।

বার্তা বাজার/জে আই