কিশোরগঞ্জের ভৈরবের ময়মনসিংহগামী নাসিরাবাদ ট্রেনের ধাক্কায় একটি পাট বোঝাই ট্রাক দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত ১টা ১৫ মিনিটে উপজেলার শম্ভপুর রেলক্রসিং লাইনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ট্রেনটি প্রায় সাড়ে চার ঘন্টা পর ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে ঘটনাস্থল থেকে ছেড়ে যায়।

পুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রোববার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে কটিয়াদি থেকে আসা ভৈরব অভিমুখী ঢাকা মেট্রো-ট-১১-৫৫৮৯ নম্বরের একটি পাট বোঝাই ট্রাক শম্ভপুর রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে রেললাইনে আটকে যায়। হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন অনেক চেষ্টা করেও ট্রাকটি লাইন থেকে সরাতে পারেনি তখন। কিছুক্ষণ পর ভৈরব থেকে ময়মনসিংহগামী নাসিরাবাদ এক্সপ্রেস লোকাল ট্রেনটি বিকল হওয়া ট্রাকটিকে ধাক্কা দিলে তা লাইন থেকে ছিটকে পড়ে দুমড়েমুচড়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।

শম্ভুপুর রেলক্রসিং গেটের দায়িত্বে থাকা গেটম্যান সুরঞ্জিত জানান, রাত সোয়া ১টার দিকে যখন চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা নাসিরাবাদ ট্রেনটি ভৈরব স্টেশন থেকে ছেড়ে আসার খবর পাই। তখনই আমি রেলক্রসিং গেইট বন্ধ করার জন্য ছুটে যাই। তখন ভৈরবমুখী পণ্যবাহী ট্রাকটি রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় রেললাইনে আটকে যায়। পরে আমরা আটকিয়ে যাওয়া ট্রাকটি লাইন থেকে সরাতে চেষ্টা করি কিন্তু মালবোঝাই হওয়ায় তা সরানো সম্ভব হয়নি। এবং এর কিছুক্ষণ পরই ট্রেন চলে আসে। তারপর আমি ট্রাকে থাকা চালক ও হেলপারকে সরিয়ে যেতে বলি। সেই সময়ে লাল পতাকা লাল বাতি নিয়ে ট্রেনটি থামানো চেষ্টা করি। তখন ট্রেনটির গতি কমিয়ে আসার পরও রেললাইনে ওপর বিকল হয়ে পড়ে থাকা ট্রাকটিকে ধাক্কা দিলে তা দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এঘটনায় ভোরে রেলওয়ে পুলিশের মাধ্যমে রেকার এনে ট্রাকটি সরানোর পর ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ট্রেনটি ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

এ বিষয়ে ভৈরব রেলওয়ে থানার ওসি মোঃ আলীম হোসেন শিকদার (পিপিএম) জানান, ৩ সেপ্টেম্বর রাত সোয়া ১টার দিকে শুম্ভুপুর রেলক্রসিংয়ে একটি পাট বোঝাই ট্রাক সিগন্যালের আগে রেললাইনের উপর স্টার্ট বন্ধ হয়ে বিকল হয়ে পড়ে। তখন স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে ট্রাকটি সরানোর চেষ্টা করেন। এর পরই নাসিরাবাদ ট্রেনটি ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে ট্রেনটিকে ধাক্কা দিলে ট্রাকটি দুমড়েমুচড়ে যায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লেবারের মাধ্যমে পাট গুলো সরাই। পরে রেকারের মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত ট্রাকটিকে নিরাপদ দূরত্বে নিয়ে রাখা হয়। এঘটনায় প্রায় সাড়ে ৪ ঘন্টা পর নাছিরাবাদ ট্রেনটি ছেড়ে যায়। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

বার্তাবাজার/এম আই