রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেও জাতীয়করণের দাবিতে ১৭তম দিনের মতো জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান করছেন শিক্ষকরা। তারা বলছেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চাই, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ছাড়া ক্লাসে ফিরে যাব না। তবে অন্যান্য দিনের চেয়ে সদস্য সংখ্যা কমিয়ে অবস্থান করছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুলাই) দুপুরে প্রেসক্লাব এলাকায় দেখা যায়, গত কয়েকদিনের মতো আজ সকাল থেকে শিক্ষকদের স্লোগানে উত্তাল প্রেসক্লাব এলাকা। তবে বিগত দিনগুলোর মতো রাস্তা বন্ধ নেই আজ। প্রেসক্লাব সড়কেই দুইপাশেই চলছে যানবাহন। প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চেয়ে একটি ব্যানার লাগিয়েছেন তারা।

শিক্ষক নেতারা বলছেন, ১২ হাজার টাকায় ১৫ দিনও চলা যায় না। সেখানে এক মাস চলব কীভাবে? এ বেতনে চাকরি করছেন মাধ্যমিক শিক্ষকরা। এটা লজ্জার। এ বৈষম্য দূর না করা পর্যন্ত আমরা স্কুলে ফিরে যাব না। আমাদের সঙ্গে ছাত্র-ছাত্রীরাও আছে, অভিভাবকরাও আছেন। গভর্নিং বডির সদস্যদেরও সম্মতি আছে। শুধু শিক্ষামন্ত্রী আর মাউশি আমাদের সঙ্গে নেই। তাদের কারণেই জাতীয়করণ আটকে আছে।

তারা বলছেন, আজ ১৭ দিনের মতো আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। নিরাপত্তার বিষয় সামনে রেখে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা ও পুলিশের পক্ষ থেকে আমাদেরে কর্মসূচি স্থগিত রাখতে বলা হয়েছে। কিন্তু যেহেতু আমাদের দাবি আদায় হয়নি এবং লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চলছে, তাই স্বল্প পরিসরে হলেও অবস্থান চালিয়ে যাব আমরা।

এরআগে বুধবার এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী শিক্ষকদের বুধবারের মধ্যেই শ্রেণিকক্ষে ফিরে যেতে বলেন। এ সময় তিনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ নিয়ে কাজ শুরুর বিষয়টি উল্লেখ করেন।

গত ১১ জুলাই সারাদেশ থেকে বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঢাকায় এসে আন্দোলনে যোগ দেন। বৃহস্পতিবার এই কর্মসূচির ১৭তম দিন চলছে।

বার্তা বাজার/জে আই