২১, অক্টোবর, ২০১৮, রোববার | | ১০ সফর ১৪৪০

তার হাত আমার পিঠে ওঠানামা করছিল

#মিটু আন্দোলনে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির আরও একটি নাম জুড়ল। এবার ৫৪ বছরের এক দক্ষিণী অভিনেতার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগ আনলেন ২৯ বছরের এক অভিনেত্রী। অভিনেত্রী শ্রুতি হরিহরণ ঠিক দু’বছর আগের একটি ঘটনার কথা সামনে এনেছেন। দক্ষিণী অভিনেতা অর্জুন সারজা অভিনয়ের সুযোগে কীভাবে তাকে যৌন হেনস্তা করেছিলেন শনিবার (২০ অক্টোবর) নিজের ফেসবুক পোস্টে সে কথা সকলের সঙ্গে শেয়ার করেছেন তিনি। শ্রুতি ফেসবুক পোস্টে লিখেন, তখন ডায়ালগ বলা শুরু হয়েছিল। ছবিতে আমি তার স্ত্রী। স্বামী-স্ত্রীর কিছু সংলাপ ছিল। কিন্তু সংলাপের বাইরে গিয়ে নিজেই আলাদা স্ক্রিপ্ট সাজিয়ে ফেলেন। সংলাপ চলাকালীনই সবাইকে অবাক করে আমাকে জড়িয়ে ধরেন। গায়ের জোর ফলিয়ে টেনে আমার শরীরটাকে একেবারে নিজের কাছে নিয়ে আসেন। তার হাত দু’টো আমার পিঠে ওঠানামা করছিল। আমি বুঝতে পারছিলাম কিন্তু কিছুই বলতে পারছিলাম না। এরপর পরিচালককে অর্জুন ফিল্মের এই অংশে একটি ফোরপ্লের দৃশ্যও রাখতে বলেন। অত্যন্ত বিস্মিত হয়েছিলেন শ্রুতি। কিন্তু অর্জুন সারজা বিষয়টা এমনভাবে সকলের কাছে উপস্থাপন করেছিলেন, যেন সবটাই তিনি অভিনয়ের স্বার্থে করছেন। অভিনয়টাকে আরও সাবলীল করার জন্য। সেই মুহূর্তে তাই কিছু বলতে পারেননি বলে দাবি করেন শ্রুতি। ছোটবেলা থেকে যার ছবি দেখে বড় হয়েছেন, তার সঙ্গে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছেন এটা ভেবে প্রথম থেকেই খুব উত্তেজিত ছিলেন শ্রুতি। কিন্তু অভিনেতাকে নিয়ে তার ভুল এভাবে ভাঙবে তা তিনি কল্পনাও করতে পারেননি। সেদিন মেকআপ আর্টিস্ট এবং সেটের কয়েক জনকে অর্জুনের অসৎ উদ্দেশ্যের কথা বলেছিলেন বলেও জানান তিনি। তবে বৃহৎ পরিসরে প্রতিবাদ করার সাহস পাননি। #মিটু আন্দোলনই তাকে সেই সাহস জুগিয়েছেন বলে ফেসবুকে জানান তিনি। শ্রুতি লিখেন, এই ঘটনা প্রকাশ্যে আনার সিদ্ধান্ত নেই, কারণ আমার মনে হয়েছে অর্জুনের বোঝা উচিত, দু’জন অভিনেতার মধ্যে যে সুক্ষ্ণ লাইনটা থাকে, তা অতিক্রম করা উচিত নয়। ক্ষমতা জাহির করে এমন কাজ করা উচিত নয়, তা অন্যকে আঘাত দেবে। #মিটু আন্দেলন আমাকে শক্তি দিয়েছে, আমাকে বুঝতে শিখিয়েছে যে, কোনও পুরুষই একজন মহিলার ব্যক্তিগত পরিসরে হস্তক্ষেপ করতে পারেন না। তিনি আরও লিখেছেন, এই ইন্ডাস্ট্রি (ফিল্ম) আমাকে অনেক কিছু দিয়েছে। আমার স্বপ্নপূরণে সাহায্য করেছে। এত কিছুর পরেও এটা বলতে আমার কষ্ট হচ্ছে যে, অনেক সময়ই আমি ভীষণ অসুরক্ষিত, হতাশ অনুভব করি। যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ, সেই অর্জুন সারজা অবশ্য ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়েছেন যাবতীয় অভিযোগ। তামিল, তেলুগু এবং কন্নড় ভাষায় ১৫০টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করা অর্জুন তার বিরুদ্ধে আনা যৌন হেনস্তার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন অভিযোগ। আমি বিস্মিত।