১৮, জানুয়ারী, ২০১৯, শুক্রবার | | ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

স্বপ্নপূরণ করতে গিয়ে না ফেরার দেশে জুনাইদ

আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৯

স্বপ্নপূরণ করতে গিয়ে না ফেরার দেশে জুনাইদ

স্বপ্ন ছিল ইউরোপে পাড়ি জমানোর। সেই স্বপ্নপূরণের আশায় দালালদের মাধ্যমে যান তুরস্কে। সেখান থেকে গ্রীস যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন সিলেটের বিয়ানীবাজারের তরুণ জুনাইদ।

তার সঙ্গে থাকা বিয়ানীবাজারের আরেক তরুণ সাইদুর রহমানসহ তিনজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে গ্রীসের গণমাধ্যম।

নিহত জুনাইদ আহমদ (২৭) বিয়ানীবাজার উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের খসিরবন্দ গ্রামের মোকামবাড়ির গনি মিয়ার ছেলে।

নিহত জুনাইদের ভাই সোহেল আহমদ জানান, ৩ মাস আগে তার ভাই স্থানীয় দালালদের মাধ্যমে ইউরোপের উদ্দ্যেশ্যে তুরস্কে পাড়ি জমায়। গত ১৩ ডিসেম্বর সে তুরস্ক থেকে গ্রীসের উদ্দ্যেশ্যে রওয়ানা দেয়ার পর থেকে নিখোঁজ হয়। সে জীবিত না মৃত এখনও তারা নিশ্চিত নন।

তার ভাইয়ের সাথে থাকা বেঁচে যাওয়া এক তরুণের বরাত দিয়ে রোববার সন্ধ্যায় তিনি জানান, তার ভাইকে বহনকারী গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হয়। এরপর তার ভাইয়ের সঙ্গে থাকা তরুণ নিজেকে হাসপাতালে দেখতে পায়। তবে তার ভাইয়ের ব্যাপারে সঠিক কোনো খবর সে দিতে পারেনি। এ থেকে মোটামুটি নিশ্চিত জুনাইদ আর বেঁচে নেই।

এদিকে, গ্রীসের গণমাধ্যম (http://www.xinhuanet.com) জানায়, গত ১৩ ডিসেম্বর অবৈধ অভিবাসী বহনকারী একটি গাড়ি উত্তর এথেন্সের পাশে কাবালা সিটি এলাকায় দুর্ঘটনার শিকার হয়ে তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যান এবং তিনজন আহত হন।

প্রায় একমাস পর জুনাইদের মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে তার পরিবারসহ স্বজনদের মধ্যে নেমে আসে শোকের ছায়া। তার পিতা-মাতা বাকরুদ্ধ। তাদের আশা সন্তান জুনাইদ আবার ফিরে আসবে।