যে যন্ত্রনা এখনও কাঁদায় পপিকে

পাঠক, সবাই হয়ত এই কথায় একমত পোষন করবেন। যা পাওয়া যায়নি তা নিয়ে একটা চাপা আফসোস বুকের ভেতর বাস করে প্রত্যেকের। কিংবা যা হতে পারতো কিন্তু হয়নি তা নিয়ে চিরকাল থাকে একটা রোমাঞ্চকর হাহাকার। মানুষ তাকে বারবার পেতে চায় যা সে পায়নি। সেজন্যই কবিরা সবসময়ই না পাওয়া প্রেমকে শ্রেষ্ঠ প্রেম বলতে চেয়েছেন।

তেমনি এক প্রেম কিংবা রোমাঞ্চকর হাহাকার বুকে বয়ে বেড়ান চিত্রনায়িকা পপির। অমর নায়ক সালমান শাহের নায়িকা হয়েই সিনেমায় এসেছিলেন পপি। প্রয়াত নায়ক সালমান শাহের সঙ্গে জুটি হয়ে হাফ ডজন ছবিতে কাজ করার কথা ছিল তার। চুক্তিবদ্ধও হয়েছিলেন বেশ কয়েকটি ছবিতে।

মনতাজুর রহমান আকবরের একটি ছবিতে সালমান শাহের বিপরীতে কাজ করার জন্য চূড়ান্ত হয়েছিলেন পপি। পাশাপাশি শিবলী সাদিক ও বাদল খন্দকারের মোট চারটি ছবিতে সালমানের নায়িকা হিসেবে কাজ করার কথা ছিলো তখনকার ফটোসুন্দরী পপির। কথা ছিলো সোহানুর রহমান সোহানের একটি ছবিতেও সালমানের নায়িকা হবেন পপি।

সবকিছুই ঠিক ছিলো। পক্ষে ছিলো না কেবল ভাগ্য। সালমানের অকাল প্রয়াণে একটি সম্ভাবনাময় জুটির অকাল মৃত্যু ঘটলো। সেই আক্ষেপ যেমন পপির আছে তেমনি আছে সালমান শাহ ভক্তদেরও।

বর্তমানে সিনেমা থেকে অনেকটা দূরে এই লাস্যময়ী তারকা।চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী নায়িকা পপি বর্তমানে নায়ক সংকটে ভুগছেন।

সালমানের মৃত্যুর পর ১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কুলি’ সিনেমায় অভিনয় করে ঢাকাই চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় পপির।আজ এই চিত্রনায়িকার জন্মদিন। বার্তাবাজার পরিবারের পক্ষ থেকে পপিকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

বার্তাবাজার/এএস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর