কাশ্মীরে নির্যাতন বন্ধ করতে মোদি সরকারকে যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

ভারত শাসিত জম্মু-কাশ্মীরে ব্যাপক গ্রেপ্তারও নির্যাতন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে তা বন্ধ করতে ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কাশ্মীরে ভারতীয় বাহিনী মানবাধিকার লংঘন করছে বলেও দেশটির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়।

রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মরগান ওরটাগুস এক বিবৃতিতে এ উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, কাশ্মীরে ব্যবসায়ী ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের গণগ্রেপ্তার ও সাধারণ জনগণের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন।

কাশ্মীরে দ্রুত যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু করার আহ্বান জানিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই বিবৃতিতে বলা হয়, কাশ্মিরে ইন্টারনেট ও মোবাইল ফোন পরিষেবা বন্ধ করার বিষয়েও আমরা উদ্বিগ্ন। স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনার মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব কাশ্মিরকে নিরাপদ ঘোষণা করতে ভারত সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয় বিবৃতিতে।

উল্লেখ্য, গত ৫ আগস্ট কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলের দুদিন আগ থেকে কাশ্মীরে অঘোষিত জরুরী আইন চলছে। কারফিউ চলাকালীন বিভিন্ন জেলায় স্বাধীনতাকামীদের দমাতে গ্রেপ্তার অভিযান এবং হামলা চালাচ্ছে ভারতীয় বাহিনী।

ভারত সরকার আটককৃতদের সংখ্যা নির্দিষ্ট করে না বললেও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বিগত একমাসে জম্মু-কাশ্মীরে গ্রেপ্তাকৃতদের সংখ্যা ৫ হাজারের বেশি ছাড়িয়ে গেছে।

ওআইসিসহ আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার পর্যবেক্ষণ মতে, নরেন্দ্র মোদির হিন্দুত্ববাদী বিজেপির সরকারের নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীর অঞ্চলটি এ মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে বড় কারাগারে পরিণত হয়েছে।

বার্তাবাজার/এএস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর