নিহত চাচীর মাথা কাটলো ভাতিজা

কাকিমা মরে গিয়ে ভূত হয়ে ঘাড়ে চাপতে পারে, এই ভয়ে নিহত চাচীর মাথা কেটে পাশের জমিতে পুঁতে দিলো ভাতিজা।চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের আনুপ্পুর জেলার দুধমানিয়া গ্রামে। জানা গিয়েছে, জমি জায়গা সংক্রান্ত বিবাদের জেরে চাচা চাচীকে খুন করে তাদের ভাইপো শঙ্কু নামে এক যুবক।

খুনের পর চাচীর মুণ্ডুহীন দেহ এবং চাচার মরদেহ ফেলে রেখে আসে গ্রামের বাইরের একটি জমিতে। পরে গ্রামবাসীরাই উদ্ধার করে দেহ দুটি।এরপর পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে ওই নারীর মুন্ডুহীন দেহে দেখে ঘাবড়ে যায়।পরে এলাকার গ্রামবাসীদের কাছে খোঁজ খবর নিয়ে শঙ্কু নামে ওই ভাইপোর খোঁজ পায় পুলিশ। এরপর চাচা-চাচীকে খুনের সন্দেহে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের মুখে শঙ্কু জানায়, চাচীকে খুন করার পর আমার মনে হয়েছে কাকিমা ভূত হয়ে আমার ঘাড়ে চাপতে পারে। কারন তিনি কালাজাদু জানতেন। তিনি কালাজাদু করতেন বলেই আমার ছেলের শরীর খারাপ হয়েছিলো বলেও জানায় শঙ্কু। যে কারণে চাচীর মাথা কেটে বাড়ির পাশের একটি জমিতে পুঁতে রাখে বলে জানায় সে। শঙ্কুর কথামতো বাড়ির পাশের জমি খুঁড়ে তার চাচীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

বার্তাবাজার/এম.কে

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর