সুপারি চুরির অভিযোগে শিশুকে শিকলে বেধে নির্যাতন

গাছের সুপারি চুরির অভিযোগে মো. আলাউদ্দিন (১২) নামে এক শিশুকে শিকল দিয়ে বেঁধে তালাবদ্ধ করে নির্যাতন করা হয়েছে। এ ঘটনায় ফাতেমা বেগম (৩৮) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে ভোলার সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার শিশু আলাউদ্দিন ওই ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ চর আনন্দ গ্রামের মো. কামাল দেওয়ানের ছেলে। গ্রেফতারকৃত ফাতেমা একই গ্রামের প্রবাসী মোছলেছ উদ্দিনের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বুধবার রাতে প্রবাসী মোছলেহ উদ্দিনের বাগানের সুপারি চুরির অভিযোগে শিশু আলাউদ্দিনকে আটক করে।

এরপর আলাউদ্দিনকে লোহার শিকল দিয়ে বেঁধে তালাবদ্ধ করে মারধর করেন প্রবাসীর স্ত্রী ফাতেমা ও তার সহযোগী একই গ্রামের ইউসুফ পাটওয়ারী, মাইনউদ্দিন ও সামছুদ্দিন।

পরে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ওই শিশুটিকে উদ্ধার করে।

ইলিশা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রতন কুমার শীল জানান, এ ঘটনায় শিশু আলাউদ্দিনের চাচা ইসমাইল হোসেন ওই চারজনকে আসামি করে ভোলা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ আসামি ফাতেমা বেগমকে গ্রেফতার করেছে। বাকিদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর