২৩, অক্টোবর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০

ছেলেটি লিখল ভালবাসা ছিল, ভালবাসা থাকবে সারা জীবন: আর মেয়েটি..

আপডেট: অক্টোবর ৯, ২০১৮

ছেলেটি লিখল ভালবাসা ছিল, ভালবাসা থাকবে সারা জীবন: আর মেয়েটি..

ফেসবুকে নিজের আপত্তিকর ছবি ছড়িয়ে দেয়ায় মানিকগঞ্জে এক এসএসসি পরিক্ষার্থী আত্বহত্যা করেছেন। তার নাম দিশারী বিশ্বাস মিম। নিহত দিশারী ওই গ্রামের মোহাম্মদ আলী টুলুর মেয়ে। সে স্থানীয় কালিয়াকৈর খান উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। সোমবার দুপুরে সিংগাইর উপজেলার ছোট কালিয়াকৈর গ্রামে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

দিশারীর মামা মিজানুর রহমান জানান, মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার নালরা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে কলেজছাত্র আলাউদ্দিন অনলাইনে ভুয়া ইমো আইডির মাধ্যমে তার ভাগ্নির সাথে প্রথমে যোগাযোগ করতো। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ইমো’তে তাদের মধ্যে কিছু ছবি আদান-প্রদান হয়। কিছুদিন যাওয়ার পর দিশারী ছেলেটির আসল পরিচয় জানলে যোগাযোগ কমিয়ে দেয়। কিন্তু আলাউদ্দিন দিশারীকে বিয়ে করার জন্য চাপ দিতে থাকে। এতে রাজি না হওয়ায় নানাভাবে দিশারীকে ব্লাকমেইল ও হুমকি দিয়ে আসছিল আলাউদ্দিন।

এ ঘটনা আলাউদ্দিনের স্বজনদেরও একাধিকবার জানানো হয় বলে জানান মিজানুর। মৌখিকভাবে সর্তক করা হয় আলাউদ্দিনকেও। কিন্তু এতেও ক্ষান্ত দেয়নি বখাটে আলাউদ্দিন। রোববার আলাউদ্দিন ‘অলেখা কাব্য’ নামক তার ফেসবুক আইডিতে দিশারীর কয়েকটি আপত্তিকর ছবি পোষ্ট করে। যা সাথে সাথে সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

এতে অপমানে ও ভয়ে আজ সোমবার দুপুরে নিজ ঘরে গলায় ওড়না পেছিয়ে আত্বহত্যা করে দিশারী বিশ্বাস মিম। ঘটনার পর থেকে মোবাইল ফোন বন্ধ করে পলাতক রয়েছে বখাটে আলাউদ্দিন।

সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি)মতিউর রহমান জানান, খবর পেয়ে সিংগাইর থানা পুলিশ দিশারীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা হয়েছে। দোষীকে ধরতে অভিযান চলছে।