২০, অক্টোবর, ২০১৮, শনিবার | | ৯ সফর ১৪৪০

বন্ধুকে পালিয়ে বিয়ে করতে সাহায্য করায় করুণ পরিণতি : অতঃপর

আপডেট: অক্টোবর ৮, ২০১৮

বন্ধুকে পালিয়ে বিয়ে করতে সাহায্য করায় করুণ পরিণতি : অতঃপর

বন্ধুকে প্রেমে সাহায্য করতে গিয়ে প্রাণ নিয়ে টানাটানি যুবকের। অভিযোগ, বন্ধুর স্ত্রীর পরিবারের সদস্যরা বেধড়ক মারধর করে ওই যুবককে। আক্রান্ত যুবকের নাম দেবরাজ দেবনাথ (২৮)। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তিনি রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার রানাঘাট থানার আইসতলা রামনগরে। ঘটনায় অভিযুক্ত ওই যুবতীর বাবা বাবলু দেবনাথ, মা মণিকা দেবনাথ-সহ চার জনকে গ্রেফতার করেছে রানাঘাট থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, স্থানীয় ব্যবসায়ী বাবলু দেবনাথের মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল গৌরব দেবনাথ নামে এক যুবকের। অভিযোগ, বাড়ি থেকে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় কয়েক দিন আগে প্রেমিক গৌরবের সঙ্গে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করেন ওই যুবতী। এই ঘটনায় বন্ধু গৌরবকে পালিয়ে বিয়ে করতে সাহায্য করেছিল দেবরাজ।

এ কথা জানতে পেরেই দেবরাজের উপরে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে ওই যুবতীর পরিবার। রবিবার রাতে আইসতলা সন্ন্যাসীবাজার এলাকায় স্ত্রীর সঙ্গে পুজোর কেনাকাটা করছিলেন দেবরাজ। অভিযোগ, তখন অতর্কিতে তাঁর উপরে চড়াও হয় তাঁর বন্ধুর স্ত্রীর পরিবারের সদস্যরা। অন্তত আট জন মিলে বেধড়ক মারধর করে দেবরাজকে। অভিযুক্ত বাবলু দেবনাথের দোকানে ঢুকিয়ে মারা হয় দেবরাজকে। সেখানেই রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে ফেলে রাখা হয় বলেও অভিযোগ।