নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন

“যৌন আক্রমণ আর না” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারা দেশে ক্রমাগত নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে সাতক্ষীরায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। দাতা সংস্থা একশনএইড-বাংলাদেশ’র সহযোগিতায় ও সাতক্ষীরায় কর্মরত বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন স্বদেশ, শারি, সুনামসহ বিভিন্ন উন্নয়ন সংস্থার আয়োজনে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে উক্ত মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।

স্বদেশের পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত এর সঞ্চালনায় “আমরাই পারি” সাতক্ষীরা জেলা জোটের চেয়ারম্যান শিক্ষাবিদ আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্যে রাখেন, শিক্ষাবিদ সুভাস সরকার, আ: সবুর বিশ্বাস, লুইস রানা গাইন, অপরেশ পাল, জ্যোৎস্না দত্ত, আবুল কালাম আজাদ, আনিসুর রহিম, আব্দুল আহাদ প্রমুখ।
মানববন্ধন বক্তারা বলেন, ২০১৯ সালের জানুয়ারি-জুন পর্যন্ত সারা দেশে ৬৩০ জন নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। যা রীতিমতো উদ্বেগজনক। ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ৩৭ জনকে। ধর্ষণের শিকার হয়ে আত্মহত্যা করেছেন আরো ৭ জন। ধর্ষণের চেষ্টা হয়েছে ১০৫ জন নারীর উপর। যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন ১২৭ জন, এর মধ্যে আত্মহত্যা করেছেন ৮ জন। ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় খুন হয়েছে ৩ জন নারী ও ২ জন পুরুষকে।

বক্তারা আরও বলেন, নারীর উপর সহিংসতা দমন রাষ্ট্র এতটাই ব্যর্থ যে সহিংসতা এখন মহামারী আকার ধারণ করছে। শিশু থেকে বৃদ্ধ সকল বয়সের নারী যৌন সহিংসতা ও ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। ঘরে, বাইরে, রাস্তাঘাট, যানবাহন, কর্মক্ষেত্র, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিনিয়ত ধর্ষণ, দলবদ্ধ ধর্ষণ, ধর্ষণের পর হত্যা, ধর্ষণ চেষ্টা বা যৌন হয়রানি, উত্ত্যক্তকরণ, এসিড আক্রমণসহ নানাবিধ সহিংসতার শিকার হচ্ছে নারী ও শিশু। বক্তারা এ সময় সারা দেশে ক্রমাগত নারী ও শিশু নির্যাতনের তীব্র প্রতিবাদ জানান।

বার্তাবাজার/কে.জে.পি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর