যৌন হয়রানিতে জড়িত শিক্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে : শিক্ষা উপমমন্ত্রী

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, সাম্প্রতিককালে শিক্ষক দ্বারা বিভিন্নভাবে হয়রানির অভিযোগ আসছে। বিশেষ করে শিক্ষকের মাধ্যমে যৌন হয়রানি খুবই জঘন্য কাজ। সরকার এ সমস্ত শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করবে।

উপমন্ত্রী বলেন, ‘সরকার শিক্ষকদের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করেছে। তাদের সমস্যা সমাধানে স্বচেষ্ট রয়েছে কিন্ত সে তুলনায় শিক্ষকদের মাঝ থেকে সেবা পাওয়া যাচ্ছে না। বরং সাম্প্রতিককালে শিক্ষক দ্বারা বিভিন্নভাবে হয়রানির অভিযোগ আসছে।

সোমবার রাজধানীর স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে জাতীয় শিশু ফোরামের আয়োজনে ‘শিশুর চোখে মানসম্মত শিক্ষা ও করণীয়’ শীর্ষক শিশু সংলাপে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

দৈনিক সমকালের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি-এর সভাপতিত্বে সংলাপে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনসিটিবির চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা।

মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, শিক্ষাঙ্গণে শারীরিক মানসিক নির্যাতন বন্ধে সরকার আন্তরিক রয়েছে। এ বিষয়ে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন জরুরি। তা প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মেয়েদের মাসিক একটি প্রাকৃতিক বিষয়। এই বিষয়ে অনেক নেতীবাচক দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে তা পরিবর্তন করতে হবে। এ বিষয়ে সচেতন করতে এবং মেয়েদের স্বাস্থ্যসম্মত সেনিটারি নেপকিন সরবরাহ করার লক্ষ্যে ঋতু নামে একটি প্রকল্প গ্রহণ করতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

অনুষ্ঠানে সারা বাংলাদেশ থেকে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী সংলাপে অংশগ্রহণ করেন।

বার্তাবাজার/ডব্লিওএস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর